ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

ফখরের সেঞ্চুরি ম্লান করে নিউজিল্যান্ডকে জেতালেন ফিলিপস

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩
ফখরের সেঞ্চুরি ম্লান করে নিউজিল্যান্ডকে জেতালেন ফিলিপস

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে পাকিস্তান হয়ে লড়লেন ফখর জামান ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। শতকও হাকালেন ফখর।

কিন্তু নিউজিল্যান্ডের ব্যাটার গ্লেন ফিলিপস ম্লান করে দিলেন সেটি। বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে হারালেন পাকিস্তানকে। জিতে নিলেন সিরিজও।  

শুক্রবার করাচির জাতীয় স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে ২ উইকেটে জিতেছে নিউজিল্যান্ড। আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৮০ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। জবাব দিতে নেমে ১১ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় নিউজিল্যান্ড। একইসঙ্গে ২-১ ব্যবধানে জিতে নেয় সিরিজ।  

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই শান মাসুদকে হারায় পাকিস্তান। শূন্য রানে তার বিদায়ের পর থিতু হতে পারেননি ব্যাট করতে নামা বাবর আজমও। ৪ রান করে উইকেট হারান পাকিস্তান অধিনায়ক। এরপর ফখর জামানকে সঙ্গ দেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। ১৬১ বলে ১৫৪ রানের দারুণ এক জুটি গড়েন তারা। ৬৫ বলে ফিফটি হাঁকান ফখর, রিজওয়ান করেন ৫৩ বলে।  

৩৪তম ওভারে রিজওয়ানকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন ইশ সোধি। ৭৪ বলে ৭৭ রান করে বিদায় নেন পাকিস্তানি ব্যাটার। অপরপ্রান্তে থাকা ফখর অবশ্য ১২২ বলে হাঁকিয়ে নেন সেঞ্চুরি। এরপর এক রান যোগ করতেই রান আউট হন। তার ইনিংসটি সাজানো ছিল এক ছক্কা ও ১০ চারে। এরপর হারিস সোহাইল কিছুক্ষণ সংগ্রহ বাড়াতে থাকেন। ২২ রানে থামে তার ইনিংস।

সোহাইলের বিদায়ের পর ব্যাট করতে নেমে পরপর উইকেট হারান মোহাম্মদ নওয়াজ (৮) ও উসমান মির (৬)। যদিও একপ্রান্তে ব্যাট চালিয়ে সংগ্রহ বাড়াতে থাকেন আঘা সালমান। শেষদিকে তার ৪৩ বলে ৪৫ রানের ইনিংসে ভালো সংগ্রহ পায় পাকিস্তান।  

রান তাড়ায় ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু করেন নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনার ফিন অ্যালেন ও ডেভন কনওয়ে। ৪৩ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ফিন অ্যালেন বিদায় নিলে। ২৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এরপর কনওয়েকে সঙ্গ দিয়ে দলকে আগাতে থাকেন কেন উইলিয়ামসন। ফিফটি হাঁকিয়ে বিদায় নেন কনওয়ে। ৬২ বলে ৫২ রান করেন তিনি।  

কনওয়ের মতো ফিফটি ছুঁয়ে বিদায় নেন উইলিয়ামসনও। ৬৮ বলে ৫৩ রান করেন কিউই অধিনায়ক। মাছে ড্যারিয়েল মিচেল কিছুক্ষণ লড়াই চালিয়ে গেলেও তার ইনিংস থামে ৩১ রানে। টম ল্যাথাম ও মাইকেল ব্রেসওয়েল উইকেট হারান ১৬ ও ৭ রান করে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়া নিউজিল্যান্ডকে শেষ পর্যন্ত টিকিয়ে রাখেন গ্লেন ফিলিপস।

তাকে সঙ্গ দিতে আসা মিচেল স্যান্টনার (১৫) ও ইশ সোধি (০) রানে বিদায় নেন। তবে ঝড়ো ব্যাট করতে থাকা ফিলিপস দলকে জিতিয়েই ছাড়েন। ৪২ বলে ৪ ছক্কা ও ৪ চারে ৬৩ রানে অপরাজিত থাকেন এই ব্যাটার। ম্যাচসেরাও নির্বাচিত হন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad