ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

ক্রিকেট

‘চিল্লাচিল্লি করলে তো নিষিদ্ধ করবে’- ডিআরএস নিয়ে কুমিল্লা কোচ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩
‘চিল্লাচিল্লি করলে তো নিষিদ্ধ করবে’- ডিআরএস নিয়ে কুমিল্লা কোচ

চট্টগ্রাম থেকে: শনিবার সকালের একটি ঘটনাই আগে বলা যাক। সিলেটের ঐচ্ছিক অনুশীলনে এসেছিলেন তিন ব্যাটার-জাকির হাসান, মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ হারিস।

মুশফিক তখন নেটে ব্যাট করছেন, বল করছেন নাজমুল ইসলাম অপু। সুইপ করতে গেলে মুশফিকের গ্লাভস হয়ে প্যাডে লাগে বল।  

‘আউট, আউট...’ বলে চিৎকার করেন অপু। চেয়ারে বসে আম্পায়ারের দায়িত্ব তুলে নেন জাকির, বলেন ‘আরে ভাই, গ্লাভসে লেগেছে..’। অপু কিছুক্ষণ চুপ করে থেকে বলেন, ‘এডিআরএস তো, আউট দিয়েও দিতে পারে’। আশা করি বুঝতে পারছেন আরও একবার ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম নিয়ে দেখা দিয়েছে বিতর্ক।  

শনিবারের ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ফরচুন বরিশালের কাছে হেরেছে ১২ রানের ব্যবধানে। ম্যাচটিতে বিস্ময়করভাবে আউট হয়েছেন কুমিল্লার জাকের আলি। লেগ স্টাম্পের বাইরে পিচ করা বলেও দেওয়া হয় আউট। এ নিয়ে পরে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছেন কুমিল্লার কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন।  

তিনি বলেন, ‘এডিআরএস থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো আমার মনে হয়। আম্পায়ার যেটা দিয়ে দেবে, সেটা দেওয়াই ভালো। এটা তো একেবারে লেগ স্ট্যাম্পের বাইরে পিচ করেছে, এমন না যে...। আমার কাছে মনে হয় একটা-দুটা সিদ্ধান্ত...প্রথম ম্যাচেও একটা সিদ্ধান্ত খারাপ হয়েছে, আজকেও। এমন ডিআরএস থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো। ’

কীভাবে এটা আউট হয় জানতে চাইলে সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমি জানি না...উনাদের রুলসে হয়তো নতুন কিছু থাকতে পারে। একটু হয়তো ছায়া-টায়া ছিল। আমি জানি না। কিন্তু এটা তাদের রুলস-টুলস হতে পারে। এ কারণে আম্পায়ার দিয়ে দিলে, সেটা দিলেই খুশি হবো। ’

জাকের আলির আউট কুমিল্লার হারের অন্যতম কারণ কি না এ নিয়ে সালাউদ্দিন বলেন, ‘টি-টোয়েন্টিতে আপনি যখন একটা ছন্দ পান তখন ওই অবস্থায় একটা উইকেট পড়ে গেলে খেলাটার জন্য ভালো না। হতে পারে আবার নাও হতে পারে (জাকিরের আউটে ব্যাটিংয়ে ছন্দপতন)। এটা নিয়ে আর ফিরতে পারবো না। আমরা হেরে গিয়েছি সেটাই সত্য। আমরা এই অবস্থা থেকে কীভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারি সেটাই বড় কথা। ’ 

ব্যাটারদের জন্য বিষয়টি কতটা হতাশার, কোচ হিসেবেই বা কীভাবে সামলান? এ নিয়ে সালাউদ্দিন বলেন, ‘এই ‍মুহূর্তে আমি আসলে কিছু বলতে পারবো না। এটা নিয়ে তো বিতর্ক অনেক চলছে। আমি শুরুতেই বলেছিলাম একটা-দুইটা সিদ্ধান্তে আপনি ম্যাচটা হেরে যাবেন। সিদ্ধান্তগুলো যদি আরেকটু ভালো হয়, আরেকটু চিন্তা ভাবনা করে দেয় তাহলে ভালো। খালি চোখে যেটা আমরা দেখছি নট আউট, সেটা থার্ড আম্পায়ার আউট দিয়ে দিচ্ছে। ’

‘কি করতে পারি? আমাদের তো কিছু করার নেই। আমরা মাঠে চিল্লাচিল্লি করি এটা কি চান? এমনিই সাসপেন্ড করে দেবে। ঠিক আছে। যেহেতু খেলা চলছে। প্রতিবাদ করেও তো লাভ নেই। আমরা লিখিত দেবো বা প্রতিবাদ করবো সেটা করেও তো লাভ নেই। কোনো লাভ হবে না। আসলে কিছু করার নেই। হাত পা বাঁধা আছে। যা হবার তাই হবে আর কি। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩ 
এমএইচবি/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।