ঢাকা, বুধবার, ৮ চৈত্র ১৪২৯, ২২ মার্চ ২০২৩, ০০ রমজান ১৪৪৪

ক্রিকেট

খুলনাকে উড়িয়ে প্লে অফের পথ পরিষ্কার করে রাখলো বরিশাল

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
খুলনাকে উড়িয়ে প্লে অফের পথ পরিষ্কার করে রাখলো বরিশাল ছবি: শোয়েব মিথুন

মূল কাজটা ব্যাটাররা আগেই করে রেখেছিলেন। ইফতিখার-সাকিবরা ব্যাট হাতে ঝড় তুলে বিশাল সংগ্রহ পাইয়ে দেন ফরচুন বরিশালকে।

পরে করিম-খালেদরা বল হাতে বাকি কাজ সারেন। আর তাতে খুলনা টাইগার্সকে সহজে হারিয়ে প্লে অফের পথ পরিষ্কার করে রাখলো বরিশাল।  

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ৩৩তম ম্যাচে আজ খুলনাকে ৩৭ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে সাকিবের দল। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আজ শুরুতে ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছিল বরিশাল। জবাবে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান তুলতেই থামে খুলনার ইনিংস।  

১০ ম্যাচে ৭ জয়ে বরিশালের পয়েন্ট ১৪। টেবিলের দুইয়ে অবস্থান তাদের। সমান ম্যাচে ২ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে থাকা সিলেট স্ট্রাইকার্স আগেই প্লে অফ নিশ্চিত করেছে। আর ১০ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট অর্জন করা খুলনা এরইমধ্যে শেষ চারে উঠার লড়াই থেকে ছিটকে গেছে। তাদের অবস্থানও টেবিলের তলানিতে। ৯ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং এক ম্যাচ কম খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে চারে অবস্থান রংপুর রাইডার্সের।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে একেবারেই সুবিধা করতে পারেনি খুলনা। দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার তামিম ইকবালের উইকেট হারায় তারা। পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়রের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে খুলনার অধিনায়ক করতে পারেন মাত্র ১ রান। এরপর আরেক ওপেনার অ্যান্ড্রু বলবার্নি (১২) ফেরেন খালেদ আহমেদের বলে।

দুই ওপেনারকে হারানোর পর ঘুরে দাঁড়ানো তো দূরের কথা, উল্টো রানের খাতা খোলার আগেই সাকিব আল হাসানের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন খুলনার টপ অর্ডারের আরেক ব্যাটার মাহমুদুল হাসান জয়। সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে লড়াই চালিয়ে চান শাই হোপ ও ইয়াসির আলী। খুলনার অধিনায়ক হোপ ২৪ বলে ২৭ রান করে খালেদ আহমেদের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন।

৫৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলা খুলনাকে জয়ের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন ইয়াসির। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিচ্ছিলেন নাহিদুল ইসলাম। দুজনের জুটিতে উঠেছিল ৮১ রান। কিন্তু দলকে ১৩৫ রানে রেখে নাহিদুল (২৪) ফিরে গেলে করিম জানাতের ওই ওভারে বিদায় নেন ইয়াসিরও। ৩৮ বলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় ৬০ রান করা ইয়াসির ফিরে গেলে কার্যত হারের ক্ষণ গণনা শুরু করে খুলনা। বাকি সময় হারের ব্যবধানটাই কিছুটা কমেছে।  

এর আগে খুলনার আমন্ত্রণে ব্যাটিংয়ে নেমে বরিশালের দুই ওপেনার আনামুল হক ও ফজলে মাহমুদের উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৩২ রান। ব্যক্তিগত ১২ রানে আনামুল বিদায় নিলে ভাঙে এই জুটি। তবে এরপর ইব্রাহীম জাদরানকে নিয়ে ফজলে মাহমুদ সেই ধাক্কা সামাল দেন। হাসান মুরাদের বলে আউট হওয়ার আগে মাহমুদের ব্যাট থেকে আসে ২৯ বলে ৩৯ রান।

জাদরান অবশ্য তেমন সুবিধা করতে পারেননি। ২৩ বলে ঠিক ২৩ রান করে বিদায় নেন এই আফগান ব্যাটার। এরপর সাকিব ও ইফতিখার আহমেদ মিলে গড়েন ৫২ রানের জুটি। দলকে দেড়শোর কাছাকাছি রেখে বিদায় নেন সাকিব আল হাসান। ২১ বলে ১ চার ও ৪ ছক্কায় ৩৬ রান করেন বরিশাল অধিনায়ক।

সাকিব বিদায় নিলেও আগ্রাসন চালিয়ে যান ইফতিখার। দারুণ সব শটে ৩০ বলে তুলে নেন ফিফটি। শেষ পর্যন্ত ৫১ রানে অপরাজিত থাকেন ইফতিখার; হাঁকান ৩টি করে চার ও ছক্কা। এছাড়া ৮ বলে ১৬ রান করে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন করিম জানাত।

বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছেন খুলনার পল ফন মিকেরেন। এছাড়া নাহিদুল ইসলাম ও হাসান মাহমুদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ফরচুন বরিশাল- ১৯৪/৫ (ইফতিখার ৫১, মাহমুদ ৩৯, সাকিব ৩৬; ফন মিকেরেন ৪৮/৩)

খুলনা টাইগার্স- ১৫৭/৮ (ইয়াসির ৬০, হোপ ৩৭; করিম ২৯/৪, খালেদ ৩৬/২)

ফলাফল- বরিশাল ৩৭ রানে জয়ী।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২৩
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa