ঢাকা, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

‘আমার নাম তৌহিদ হৃদয় নয়, তাওহিদ’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৮ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০২৩
‘আমার নাম তৌহিদ হৃদয় নয়, তাওহিদ’

সিলেট থেকে : সব প্রশ্নের শেষেই তার মুখে লেপ্টে থাকে একটা হাসি। তাওহিদ হৃদয়ের ব্যাটও হাসছে অনেকদিন ধরে।

বিপিএলে সিলেট স্ট্রাইকার্সের হয়ে শুরু, এরপর জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি জার্সিটা গায়ে উঠেছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। মাঝে শেখ জামালের হয়ে ডিপিএলে একটি ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন, সেখানেও হয়েছেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ।  

এবার সিলেটে ওয়ানডেতে নিজের অভিষেক ম্যাচেও তাই। এরপর সংবাদ সম্মেলনে এসে একটি আফসোসের কথাও শোনালেন তাওহিদ হৃদয়। বগুড়ার এই ক্রিকেটার অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতেছেন। তখন থেকেই তার নামটা লেখা হচ্ছে ভুলভাবে। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের আগ্রহেই সেটি বলেছেন তিনি।    

‘আমার নাম হচ্ছে আসলে তাওহিদ হৃদয়। তবে সবাই আমাকে তৌহিদ বলে। অনূর্ধ্ব-১৯ থেকেই সবাইকে বলে আসছি, কিছু জায়গায় ঠিক ছিল। তবে এখন বেশিরভাগ জায়গায় তৌহিদই চলছে। তবে তাওহিদ ডাকলে আমার ভালো লাগবে। তাওহিদের সুন্দর একটা অর্থ আছে তো, এ কারণে (হাসি)। ই-কার (হাসি)। ’ তাওহিদ নামের অর্থ ‘একাত্মতা’ মূলত এটিই বলেছেন তিনি।

হৃদয়ের জন্য সব কিছুকেই এখন অনেকটা স্বপ্নের মতো। মুশফিকুর রহিমকে দেখে অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন ক্রিকেট খেলার, ওয়ানডে অভিষেকের ক্যাপ নিয়েছেন তার কাছ থেকেই। কী বলেছিলেন তিনি? সেটি জানাচ্ছিলেন তাওহিদ, ‘ভালো কিছু করো ভবিষ্যতে, দেশকে ভালো কিছু দাও। উৎসাহ দিয়েছেন।  

মুশফিকের সঙ্গে তার ছোটবেলার গল্পটাও শোনান তাওহিদ, ‘আমি অনেক ছোট ছিলাম ২০০৭ এর একটা কাহিনী। মুশফিক ভাই বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে জিতে একটা স্টাম্প পেয়েছিলেন। তখন আমি অনেক ছোট, একদিন স্টেডিয়ামে গিয়েছিলাম। একটা প্রোগ্রামে মুশফিক ভাইয়ের কাছে যখন স্টাম্প দেখেছিলাম তখন থেকেই অনেক অনুপ্রাণিত হই। ওখান থেকেই ইচ্ছে ছিল যদি আমি একদিন খেলতে পারি জাতীয় দলে। ’

বাংলাদেশ সময় : ২২২৯ ঘণ্টা, ১৮ মার্চ, ২০২৩
এমএইচবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad