ঢাকা, বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১৯ জুন ২০২৪, ১১ জিলহজ ১৪৪৫

ক্রিকেট

প্রিমিয়ার লিগে জয়ে শুরু মোহামেডান, রূপালী ব্যাংক, কলাবাগান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৭ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০২৪
প্রিমিয়ার লিগে জয়ে শুরু মোহামেডান, রূপালী ব্যাংক, কলাবাগান

নারী প্রিমিয়ার লিগের পর্দা উঠেছে শুক্রবার। বিকেএসপির তিন মাঠে হচ্ছে খেলাগুলো।

প্রথমদিনে জয় পেয়েছে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন রূপালী ব্যাংক, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, কলাবাগান ক্রীড়া চক্র। প্রথম দিনে সেঞ্চুরি করেছেন মোহামেডানের জেসিয়া আক্তার, পাঁচ উইকেট নিয়েছেন একই ক্লাবের সাবিকুন নাহার।

বিকেএসপির এক নম্বর মাঠে বড় জয় পেয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ২৫৪ রানের ব্যবধানে তারা হারিয়েছে জাভেদ আহসান সোহেল ক্রিকেট ক্লাবকে। ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩০৫ রান করে মোহামেডান। রান তাড়ায় নেমে স্রেফ ৫১ রানে অলআউট হয়ে যায় জাবেদ আহসান ক্রিকেট ক্লাব।

মোহামেডানের হয়ে এ ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকান ভারতের নারী ক্রিকেটার জেসিয়া আক্তার। ১৬ চার ও ৩ ছক্কার ইনিংসে ৬৯ বলে ১০২ রান করে নীলা ইসলামের বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে আউট হন জেসিয়া। দলটির পক্ষে ৪৬ বলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪১ রান আসে রুমানা আহমেদের ব্যাটে। জাবেদ আহসান ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে ১০ ওভারে ৪৯ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন নীলা ইসলাম।  

রান তাড়ায় নেমে জাবেদ আহসানের হয়ে তিনজনই কেবল দুই অঙ্কে পৌঁছাতে পারেন। দুই ওপেনারের মধ্যে মণিকা আক্তার ২৬ বলে ১১ ও এশা রহমান ২৪ বলে ১০ রান করেন। ২৩ বল খেলে সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন মুর্শিদা নাজনীন। মোহামেডানের হয়ে ৩ ওভারে স্রেফ ৪ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট পান সাবিকুন নাহার।

লিগের উদ্বোধনী দিনে বিকেএসপির দুই নম্বর মাঠে বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপিকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রূপালী ব্যাংক ক্রীড়া পরিষদ। শুরুতে ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ২১১ রান করে বাংলাদেশ আনসার। ওই রান ৪৬ ওভার ৩ বলে তাড়া করে রূপালী ব্যাংক।  

আগে ব্যাট করা আনসারের সর্বোচ্চ রান আসে সুলতানার ব্যাটে। ৪ চার ও ৩ ছক্কায় ৮৮ বলে ৭৬ রান করেন সুলতানা। এছাড়া ৬৬ বলে ৩৬ রান আসে আরবিন তানির ব্যাটে। রূপালী ব্যাংকের হয়ে ৮ ওভারে ৩২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন পূজা চক্রবর্তী।  

রান তাড়ায় নেমে খুব একটা কষ্ট করতে হয়নি রূপালী ব্যাংককে। ১২৩ বলে ৯৪ রান করে অপরাজিত থাকেন ফারজানা হক পিংকি। ৮৫ বলে ৫৯ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হন লতা মণ্ডল। ৩৭ বলে ৩৬ রান করে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি।  

বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে কলাবাগান ক্রীড়া চক্র ৬৫ রানে জয় পেয়েছে সিটি ক্লাবের বিপক্ষে। এই ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ১৮৮ রানে অলআউট হয়ে যায় কলাবাগান। ওই রান তাড়া করত নেমে ১২৩ রানে অলআউট হয় সিটি ক্লাবও।

কলাবাগানের হয়ে ৭০ বলে সর্বোচ্চ ৫২ রান আসে ওপেনার ফাতেমা তুজ জোহরার ব্যাটে। ৬২ বলে ৩১ রান করেন বিথী পারভিন। সিটি ক্লাবের হয়ে ১০ ওভারে ৩০ রান দিয়ে চার উইকেট নেন ফেরদৌসি।

রান তাড়ায় নেমে একদমই সুবিধা করতে পারেনি সিটি ক্লাব। দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৮ বলে ৩৪ রান আসে মিষ্টি রানি সাহার ব্যাটে। ৬৩ বলে ৩২ রান করেন মিশু খান, এছাড়া ১৮ রান করেন কামরুন নাহার। এই তিনজনের বাইরে আর কোনো ব্যাটারই দুই অঙ্ক ছুঁতে পারেননি। কলাবাগানের হয়ে ৯ ওভারে ৩১ রান দিয়ে চার উইকেট নেন মাহারুন নেসা জয়া।  

বাংলাদেশ সময় : ১৭০৩ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০২৪
এমএইচবি/এএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।