ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

ক্রিকেট

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারের পর উইকেটের দায় দিলেন শান্ত

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৩৮ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হারের পর উইকেটের দায় দিলেন শান্ত

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। কিন্তু প্রস্তুতির শুরুতেই বড় ধাক্কা খেয়েছে টাইগাররা।

প্রথম ম্যাচেই তাদের হারিয়ে চমকে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে এমন হারের পেছনে উইকেটের দায় দেখেছেন সফরকারী দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সামর্থ্য এমনিতেই প্রশ্নবিদ্ধ। ঘরের মাটিতে কিছুদিন আগেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে জিতলেও ব্যাটারদের দুর্বলতা ছিল চোখে পড়ার মতো। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষেও তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে একই চিত্র দেখা গেছে। টপ অর্ডারের দুই ব্যাটার লিটন দাস (১৪) ও শান্ত (৩) দুজনেই ব্যর্থ হয়েছেন।  

আউট হওয়ার আগ পর্যন্ত দুজনেই উইকেটে টিকে থাকার লড়াই চালিয়ে গেছেন। যা টি-টোয়েন্টিতে বেমানান। রান পাননি দলের সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসানও (৬)। তবে মাঝে তাওহিদ হৃদয় (৪৭ বলে ৫৮ রান) ও শেষদিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের (২২ বলে ৩১ রান) ব্যাটে ভর করে ১৫৩ রানের মাঝারি সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ।

জবাবে ৩ উইকেট হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবার মুখোমুখি হয়েই বাংলাদেশের মতো পুরনো ও অভিজ্ঞ দলকে হারিয়ে রীতিমতো ইতিহাস গড়ে ফেলেছে তারা। বিপরীতে এই হার বাংলাদেশের জন্য লজ্জার। ব্যাটারদের মতো বোলাররাও এদিন ব্যর্থতার নজির স্থাপন করেছেন। শুরুতে কিছুট চাপে রাখলেও স্বাগতিকদের ৬ ও ৭ নম্বরে নামা কোরি অ্যান্ডারসন (২৫ বলে ৩৪* রান) ও হারমিত সিং (১৩ বলে ৩৩* রান) মিলেই ম্যাচ বের করে নিয়েছেন।  

যে পিচে বাংলাদেশের ব্যাটাররা রান তুলতে হিমশিম খেয়েছেন, সেই একই পিচে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাটাররা খুব সাবলীল না হলেও বুঝেশুনে খেলেছেন। বিপরীতে অভিজ্ঞ বোলিং লাইনআপ থাকা সত্ত্বেও তাদের আটকে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে হারের কারণ বলতে গিয়ে অবশ্য উইকেটের দায় দিলেন শান্ত। সেই সঙ্গে আঙুল তুললেন ব্যাটিংয়ের দিকেও। দায় দিয়েছেন শেষ দুই ওভারে ভালো বোলিং না করতে পারারও।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক বলেন, 'আমরা ভালো ব্যাটিং করিনি। প্রথম দুই ওভারে ভালো শুরু করেছিলাম। কিন্তু মাঝে উইকেট হারিয়েছি। নাহলে আমরা আরও ২০ রান বেশি করতে পারতাম। তাতে ম্যাচের চিত্রটা ভিন্ন হতো। আমার মনে হয় ভালো উইকেটে খেলছি না। জিম্বাবুয়ে সিরিজেও একই অবস্থা ছিল। তবে এটা মানসিক ব্যাপার। আশা করি, (পরের ম্যাচে) ব্যাটাররা ঘুরে দাঁড়াবে। স্পিনাররা ভালো বোলিং করেছে। তবে পেসাররা শেষ দুই-তিন ওভারে পরিকল্পনা মতো বোলিং করতে পারেনি। আশা করি পরের ম্যাচে ভালো করবে। '

প্রথম ম্যাচ জিতে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামীকাল মাঠে গড়াবে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। সিরিজ বাঁচাতে হলে যে ম্যাচটি বাংলাদেশকে জিততেই হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৩৮ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।