ঢাকা, রবিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

ক্রিকেট

পাকিস্তানি আম্পায়ারকে ‘ঘুষ’ দিয়েছিলেন শেবাগ!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৬, ২০২২
পাকিস্তানি আম্পায়ারকে ‘ঘুষ’ দিয়েছিলেন শেবাগ!

বীরেন্দ্র শেবাগ ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম বিস্ফোরক ব্যাটার। সব ফরম্যাটেই ব্যাট হাতে ঝড় তুলতেন তিনি।

তবে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করলেও আউট হওয়ার পর সহজে ক্রিজ ছাড়তে চাইতেন না এই ডানহাতি। সেজন্য নাকি একবার পাকিস্তানের আম্পায়ার আসাদ রউফকে ‘ঘুষ' দিয়েছিলেন তিনি।  

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শেবাগ জানান, আম্পায়ারদের দামি ব্র্যান্ডের জুতো, চশমা এবং টি-শার্ট উপহার হিসেবে দিতেন তিনি। যাতে আম্পায়াররা তার বিরুদ্ধে সহজে আউটের সিদ্ধান্ত না দেন। ২০০৮ সালে মোহালিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট ম্য়াচ খেলার সময়েও এমনই একটি ঘটনা ঘটেছিল।

৮০ রানে ব্যাট করছিলেন শেবাগ। সাবেক অজি ফাস্ট বোলার মিচেল জনসন তাকে একটি শর্ট পিচ ডেলিভারি করেছিলেন। ওই ডেলিভারিতে তার ব্যাটের কানায় লেগে বল উইকেটরক্ষকের হাতে যায়। কিন্তু পাকিস্তানি আম্পায়ার আসাদ রউফ তার আঙুল তোলেননি। সে সময় ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের (ডিআরএস) কোনো ব্যবস্থা ছিল না, বেঁচে যান শেবাগ।

ওই ঘটনার কথা স্মরণ করে শেবাগ বলেন, ‘শৌখিন সামগ্রীর প্রতি দূর্বলতা ছিল আসাদ রউফের। উনি দামি ব্র্যান্ডের চশমা, টি-শার্ট, জুতো এবং অন্য সামগ্রী ব্যবহার করতে ভালোবাসতেন। সেই সময় আমি অ্যাডিডাসের শুভেচ্ছাদূত ছিলাম। সেকারণে আমি মাঝেমধ্যেই তাকে ওই ব্র্যান্ডের চশমা, টি-শার্ট, জুতো উপহার দিতাম। আর মজা করে বলতাম, আমি যখন ব্যাট করব, তখন যেন সহজে আউটের জন্য আঙুল না তোলেন। ’

শেবাগ আরো বলেন , ‘উনি (আসাদ রউফ) ঠিক সেই কাজটাই করেছিলেন। ২০০৮ সালে মোহালিতে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে খেলেছিলাম। মিচেল জনসন আমাকে একটা শর্ট পিচ ডেলিভারি করেছিল। আমি কাট করতে গেলে বলটি ব্যাটের কানায় লেগেছিল। ড্রেসিংরুম পর্যন্ত সেই ব্যাটে-বলের সংযোগের শব্দ শুনতে পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু রউফ আউট দেননি। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৬, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa