ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

গীতার জ্ঞান মানুষের মানবতা জাগরিত করে

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২৩
গীতার জ্ঞান মানুষের মানবতা জাগরিত করে

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি শ্যামল কুমার পালিত বলেছেন, গীতার জ্ঞান মানুষের মানবতা জাগরিত করে মানুষকে সৎ পথে পরিচালিত করে। গীতার বৈশিষ্ট্য তার সর্বজনীনতায়।

 

শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) বোয়ালখালী উপজেলাধীন কধুরখীল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে স্বর্ণপদক গীতা প্রতিযোগিতার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।  

গীতা প্রতিযোগিতা উপ পরিষদ বোয়ালখালী উপজেলার আহবায়ক অপু কুমার বৈদ্যের সভাপতিত্বে ও সদস্যসচিব বিপ্লব দাশ বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিতাই প্রসাদ ঘোষ উদ্বোধক এবং চট্টগ্রাম জেলার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ পালিত, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ-চট্টগ্রাম মহানগরের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক লায়ন ডা. বিধান মিত্র, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-বোয়ালখালী উপজেলার সাবেক সভাপতি প্রকৌশলী সুব্রত বিশ্বাস সিকিম, সাবেক সভাপতি অজিত বিশ্বাস, সাবেক সদস্য সচিব অমিত লালা, সভাপতি রাজীব চক্রবর্ত্তী, সাধারণ সম্পাদক বিশু রাম বসু সাটু, গীতা প্রতিযোগিতা উপ-পরিষদ চট্টগ্রাম জেলার সদস্য রণজিৎ দাশ বিশেষ অতিথি ছিলেন।

 

স্বাগত বক্তব্য দেন গীতা প্রতিযোগিতা উপ-পরিষদ বোয়ালখালী উপজেলার সমন্বয়ক উজ্জ্বল শুক্ল দাশ। প্রতিযোগিতার মূল্যায়ন শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বোয়ালখালী পৌরসভার মেয়র ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জহুরুল ইসলাম জহুর। এতে অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-চট্টগ্রাম জেলার সহ-সভাপতি কাউন্সিলর সুনীল চন্দ্র ঘোষ উদ্বোধক, বিশিষ্ট ধর্মতত্ত্ববিদ অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্ত্তী প্রধান বক্তা এবং গীতা প্রতিযোগিতা উপ-পরিষদ চট্টগ্রাম জেলার সদস্য সচিব অধ্যাপক শিপুল দে, যুগ্ম-আহবায়ক অরূপ কুমার নাথ, সদস্য মাস্টার অজিত কুমার শীল, সদস্য বিশিষ্ট কলামিস্ট শিক্ষক উত্তম চক্রবর্ত্তী, সদস্য রূপন মহাজন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ-পটিয়া উপজেলার সভাপতি শিক্ষক রূপক শীল ও সাধারণ সম্পাদক রাজীব দাশগুপ্ত ছোটন, শাকপুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জনার্দ্দন চৌধুরী রঘু, পোপাদিয়া ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল দাশ, মহিলা ইউপি সদস্য রমা ঘোষ, ইউপি সদস্য পংকজ চন্দ, ইউপি সদস্য জুয়েল চৌধুরী, ইউপি সদস্য কুমকুম দাশ বিশেষ অতিথি ছিলেন। প্রতিযোগিতার বিচারকার্যে অংশ নেন গীতা প্রশিক্ষক অংকুশ দে, শিক্ষক সুশান্ত দাশ, রাজ মহাজন, দেবী রুদ্র, ওসমিতা দে। সংগীত পরিবেশনায় ছিলেন রূপা রায় চৌধুরী ও প্রিয়ন্তি দাশ। নৃত্যে অংশ নেন অলকা মজুমদার ও তাঁর দল।  
প্রতিযোগিতায় বিজয়ীরা হলেন : ক বিভাগ : ১ম স্থান- দীপ চৌধুরী, ২য় স্থান- প্রিয়াম নাগ, ৩য় স্থান- শ্রেয়া দাশ অন্তিকা, ৪র্থ স্থান- নন্দিতা সেন ও ৫ম স্থান- সঞ্চারী দাশ। খ বিভাগ: ১ম স্থান- সৃজন চৌধুরী, ২য় স্থান - দেবস্পিতা দাশ, ৩য় স্থান : রাজ বিশ্বাস, ৪র্থ স্থান : আদিত্য চৌধুরী ও ৫ম স্থান : শ্রাবনী দে। গ বিভাগ : ১ম স্থান: প্রান্তি চৌধুরী, ২য় স্থান: পূজা বিশ্বাস, ৩য় স্থান: তৃষ্ণা নাথ, ৪র্থ স্থান: অর্পা দেওয়ানজী ও ৫ম স্থান: পায়েল দাশ। বিজয়ীরা স্বর্ণপদক গীতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২৩
এআর/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।