ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

সবকিছুর ঊর্ধ্বে দেশের স্বার্থ: ভূমিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
সবকিছুর ঊর্ধ্বে দেশের স্বার্থ: ভূমিমন্ত্রী ...

চট্টগ্রাম: ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, সবকিছুর ঊর্ধ্বে দেশের স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে। দেশকে ভালোবাসতে হবে।

এটাও একটা ইবাদত। সবসময় দেশ ও জাতির জন্য ভালো কিছু করার মানসিকতা পোষণ করতে হবে।
দেশ কি দেবে সেই প্রশ্ন না করে তুমি দেশকে কি দেবে সেটাই সবসময় মনে রাখতে হবে।

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) বসন্তকালীন সেমিস্টার ২০২২ এর ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের মাঝে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে হলে দেশের স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস জানতে হবে। এত রক্তের বন্যা ও মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময় স্বাধীনতা অর্জন বিশ্বে বিরল। বিশাল অবকাঠামোসহ নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক পরিবেশে প্রতিষ্ঠিত আইআইইউসি অন্য যেকোনও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পৃথক বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। নতুন করে সাজানো গেলে বিশ্ববিদ্যালয়টিকে বিশ্বের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করা সময়ের ব্যাপার।

রোববার (৯ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় আইআইইউসি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ওরিয়েন্টেশনে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর আনোয়ারুল আজিম আরিফ। প্রোগ্রাম উদ্বোধন করেন আইআইইউসির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের (বিওটি) চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি।  

বক্তব্য দেন আইআইইউসির বিওটি সদস্য খাদিজাতুল আনোয়ার সনি এমপি, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. মাছরুরুল মাওলা, আইআইইউসির বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ড. ইঞ্জিনিয়ার রশীদ আহমদ চৌধুরী, মিসেস রিজিয়া সুলতানা চৌধুরী, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির।

উপস্থিত ছিলেন বিওটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ড. কাজী দ্বীন মুহাম্মদ, বিওটি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. শাহাদাত হোসাইন। স্বাগত বক্তব্য দেন আইআইইউসির রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ শফীউর রহমান।  

উদ্বোধকের বক্তব্যে প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী বলেন, ১৯৯৫ সালে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ছিলাম। আরবী ভাষা ইনস্টিটিউট দিয়েই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা। নিজ প্রচেষ্টায় বিদেশি অর্থায়নে আইআইইউসির অবকাঠামোগত উন্নয়নের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ২০০৮ সালের পর থেকে আইআইইউসির অবকাঠামোগত উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিরাজমান বন্ধ্যাত্ব কাটিয়ে ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিগত বছরগুলোতে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সরকারের একটা দূরত্ব ছিল। এখন নবগঠিত একটি হাই প্রোফাইল ট্রাস্টি বোর্ড প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক আইআইইউসির সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২২
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa