ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

শিক্ষা

রুয়েট শিক্ষকদের কাফনের কাপড় পাঠানো ব্যক্তিদের গ্রেফতার দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
রুয়েট শিক্ষকদের কাফনের কাপড় পাঠানো ব্যক্তিদের গ্রেফতার দাবি

রাজশাহী: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের কাফনের কাপড় পাঠানোর ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার (২ জানুয়ারি) মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।  

সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

 

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ফটকের সামনে রুয়েট প্রশাসনের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। কর্মসূচি থেকে এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়েছে।

এ সময় হুমকি পাওয়া শিক্ষক-কর্মকর্তারা বলেন, কোনো এক কুচক্রী মহল বিশ্ববিদ্যালয়ের যে সুনাম আছে তা নষ্ট করার জন্য এ কাজ করেছে। আমাদের দাবি যেহেতু ডাক যোগাযোগে চিঠি ও কাফনের কাপড় পাঠানো হয়েছে সুতরাং তাদের আইনের আওতায় আনা খুব বেশি কঠিন বলে মনে করছি না। কারণ আমরা এখন ডিজিটাল যুগে বাস করছি আর এটা তথ্য-প্রযুক্তির যুগ। প্রতিটি ডাকঘরে এখন সিসি ক্যামেরার আওতায় আছে সুতরাং প্রশাসন কেন তাদের চিহ্নিত করতে এতোটা দেরি করছে তা বুঝে উঠতে পারছি না। প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বক্তারা দোষীদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। না হলে আগামীতে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুমকি দেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন- রুয়েটের রেজিস্টার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. সেলিম হোসেন, যন্ত্রকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক, গবেষণা ও সম্প্রসারণের পরিচালক ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. ফারুক হোসেন, ছাত্রকল্যাণ পরিচালক ও শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. রবিউল আওয়াল, রুয়েট বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি অধ্যাপক ড. আশরাফুল আলম, রুয়েট বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও ইউআরপি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. কামরুজ্জামান রিপন, আইপিই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।

এর আগে গত ২১ ডিসেম্বর রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ৯ শিক্ষক-কর্মকর্তাকে কাফনের কাপড়সহ চিঠি দিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছিল। ডাকযোগে পাঠনো হলুদ খামের ভেতর তাদের কাছে ছোট কাফনের কাপড়ের টুকরো পাঠানো হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২২
এসএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad