ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

শিক্ষা

অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, ২ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩১ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, ২ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি): শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের শিক্ষার্থী মেহেদি হাসানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শহীদ শাহনেওয়াজ ছাত্রাবাসে আটক রেখে ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়া এবং ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করার ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় ঢাবির দুই শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।  

রোববার (০৩ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেটের এক সভায় এই বহিষ্কারাদেশ চূড়ান্ত করা হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল।

বহিষ্কৃতরা হলেন হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের শিক্ষার্থী জাহিদ শেখ এবং স্যার এ এফ রহমান হলের মো. শাহরিন ইসলাম। তারা দুজনই চারুকলা অনুষদের মৃৎশিল্প বিভাগের ২০২০-২১ সেশনের শিক্ষার্থী।

তাদের কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না এই মর্মে সাত কর্মদিবসের মধ্যে জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য বাংলানিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নাম না প্রকাশের শর্তে এক সিন্ডিকেট সদস্য বলেন, বহিষ্কারাদেশ চলাকালীন শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করতে পারবেন না। যদি নির্দেশ অমান্য করে সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট হল প্রশাসন তাৎক্ষণিক প্রক্টর অফিসের মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে অবগত করবে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার এ এফ রহমান হলের অধীনে শাহনেওয়াজ ছাত্রাবাসে শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের শিক্ষার্থী মেহেদি হাসানকে আটকে রাখেন বহিষ্কৃত এই দুই শিক্ষার্থী। এ সময় তার সঙ্গে থাকা ১০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন তারা এবং ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা লালবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩০ ঘণ্টা, মার্চ ০৪, ২০২৪
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।