ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি দ্রুত বাস্তবায়নের আহ্বান ইউজিসির

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৪
ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি দ্রুত বাস্তবায়নের আহ্বান ইউজিসির

ঢাকা: দেশে ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বাস্তবায়নে একটি সমন্বিত নীতিমালা থাকা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। তিনি নীতিমালাটি দ্রুত বাস্তবায়নেরও আহ্বান জানান।

বাংলাদেশে ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বাস্তবায়ন এবং বাজারভিত্তিক দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান নিশ্চিতকরণে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত উচ্চশিক্ষা উপকমিটির প্রথম সভায় তিনি এ কথা বলেন।

রোববার (২৪ মার্চ) ইউজিসিতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র, ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বাস্তবায়নে গঠিত উচ্চশিক্ষা উপকমিটির সদস্যসচিব প্রফেসর ড. হাসিনা খান, বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের সদস্য প্রফেসর ড. এস এম কবীর, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এমদাদুল হক চৌধুরী, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হাবিবুর রহমান, বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শাহ্ আলিমুজ্জামান, ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আবদুর রশীদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) প্রফেসর ড. সীতেশ চন্দ্র বাছারসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রফেসর আলমগীর বলেন, ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতির চাহিদা নিরূপণ ও বাস্তবায়নে কার্যকর বাজেট প্রণয়ন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইউজিসি প্রণীত ব্লেন্ডেড শিক্ষা নীতিমালাটি যাচাই বাছাইয়ের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের নিয়ে বিভিন্ন উপকমিটি গঠন করবে।

প্রফেসর বিশ্বজিৎ বলেন, করোনা মহামারির সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরাসরি শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় বিডিরেনের সহায়তায় অনলাইন প্লাটফর্মে শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখা হয়। এর ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ব্যাপকভাবে উপকৃত হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি  মোকাবেলা করার জন্য সরকার ব্লেন্ডেড শিক্ষা নীতিমালা তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বলে তিনি জানান।

প্রফেসর সাজ্জাদ হোসন ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতিতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, সাইবার সিকিউরটি, কর্মদক্ষতা উন্নয়ন, শিল্প ও বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সহযোগিতা বৃদ্ধি, উদ্যোক্তা উন্নয়ন, উদ্ভাবন, গবেষণার বাণিজ্যিকীকরণ, পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ এবং ৫-জি বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করার পরামর্শ দেন।

প্রফেসর হাসিনা খান সভায় কমিটির কার্যপরিধি ও অগ্রগতি তুলে ধরেন। সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বাস্তবায়ন বিষয়ে অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য প্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের প্রফেসর ড. কাজী মুহাইমিন-আস-সাকিব, বাংলাদেশ রিসার্চ অ্যান্ড এডুকেশন নেটওয়ার্ক এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তৌরিত ইউজিসি কর্তৃক প্রণীত ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বিষয়ে খসড়া রুপরেখা তুলে ধরেন।

এছাড়া, উচ্চশিক্ষায় ব্লেন্ডেড শিক্ষা পদ্ধতি বাস্তবায়নে ইউজিসি কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং জাতীয় পর্যায়ে উচ্চশিক্ষা উপকমিটির কার্যপরিধি তুলে ধরেন কমিশনের উপপরিচালক বিষ্ণু মল্লিক।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৪
এমআইএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।