ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

বরিশালে সোয়া ২ কোটি বই পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭
বরিশালে সোয়া ২ কোটি বই পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা

বরিশাল: নতুন বছরের প্রথম দিন সারাদেশে প্রাথমিক-মাধ্যমিক পর্যায়ে নতুন বই পাবে শিক্ষার্থীরা। এরইমধ্যে ‘বই উৎসব’কে ঘিরে জেলা থেকে শুরু করে উপজেলা ও স্কুল পর্যায়ে বই সরবরাহের কার্যক্রম প্রায় শেষ হয়েছে।

বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় প্রাথমিক-মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এবং মাদ্রাসার দাখিল ও ইবতেদায়িতে ২ কোটি ১৪ লাখ ২২ হাজার ১৯২টি (কপি/পিস) বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

বরিশাল বিভাগীয় শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিকে বরিশাল বিভাগে ৬ হাজার ২শ’ ৩১টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।

যার অনুকূলে ৫৬ লাখ ৪৮ হাজার ২৯১টি নতুন পাঠ্যবইয়ের চাহিদা রয়েছে।

এর মধ্যে বাংলা ভার্সনে বরিশাল জেলায় ১৫ লাখ ৪৪ হাজার ৮শ’, পিরোজপুর জেলায় ৬ লাখ ১৯ হাজার ৮শ’, ঝালকাঠিতে ৩ লাখ ৫১ হাজার ৪৯৮, বরগুনায় ৬ লাখ ২৪ হাজার ৬৬০, পটুয়াখালীতে ১০ লাখ ৩৫ হাজার ৪৪১ এবং ভোলায় ১৪ লাখ ৭২ হাজার ৯২ পিস বইয়ের চাহিদা রয়েছে।

বরিশাল বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উপ-পরিচালক এস এম ফারুক হোসেন জানান, এরইমধ্যে বরিশাল বিভাগের ৬ জেলার উপজেলা পর্যায়ে শতভাগ বই পৌঁছেছে। নতুন বছরের প্রথম দিনে সারাদেশের সঙ্গে একযোগে শিক্ষার্থীরা নতুন বই হাতে নিয়ে বই উৎসব পালন করবে।

অপরদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বরিশাল আঞ্চলিক কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল বিভাগে নিম্নমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে ১ হাজার ৬৩৯টি, স্কুল অ্যান্ড কলেজ রয়েছে ৪২টি, দাখিল ও ইবতেদায়ি মিলিয়ে মোট মাদ্রাসা ১ হাজার ১৭৬টি। ফলে মোট ২ হাজার ৮শ’ ৫৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে বরিশাল বিভাগে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ লাখ ৪৭ হাজার ৬৬৪ জন।

আর এ শিক্ষার্থীদের জন্য মোট ১ কোটি ৫৭ লাখ ৭৩ হাজার ৯০১ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে। এরমধ্যে শুধু বরিশাল জেলায় নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক ও মাদ্রাসা মিলিয়ে ৬৮৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ২ লাখ ৭২ হাজার ৩৪৮ শিক্ষার্থীর জন্য ৪২ লাখ ৫৬ হাজার ১৪৩ কপি বইয়ের চাহিদা রয়েছে।  

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বরিশাল আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ‍শিক্ষাখাতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে বছরের শুরুতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ বর্তমান সরকারের শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী পদক্ষেপ। ২০১২ সাল থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়ে এখনও  চলমান রয়েছে। বরিশালে নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক ও মাদ্রাসা মিলিয়ে যে বইয়ের চাহিদা রয়েছে তারমধ্যে ৯৮ দশমিক ১২ ভাগ বই স্ব-স্ব স্থানে পৌঁছে গেছে। বাকি বইও পৌঁছে যাবে।

বাংলা‌দেশ সময়: ১৮২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭
এমএস/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।