ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

‘ডিআইএফএফ’-এ জিরো বাজেট ফিল্ম নিয়ে হবে ‘মাস্টার ক্লাস’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২৩
‘ডিআইএফএফ’-এ জিরো বাজেট ফিল্ম নিয়ে হবে ‘মাস্টার ক্লাস’

স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতারা কীভাবে কোনো বিনিয়োগ ছাড়াই বা ন্যুনতম বিনিয়োগে সিনেমা নির্মাণ করতে পারবেন, সে কৌশল নিয়ে মাস্টার ক্লাস হবে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে (ডিআইএফএফ)।  

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা ক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে কথা জানান উৎসবের ফিপ্রেসি জুরি বিধান রিবেরু।

মাস্টার ক্লাসটি তিনি সমন্বয় করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিধান রিবেরু বলেন, এ বিষয়টা নিয়ে এখন অনেক জায়গায় কথা হচ্ছে, ক্লাস হচ্ছে। ডিআইএফএফ এ এবারই প্রথম বিষয়টি নিয়ে মাস্টার ক্লাস হবে। বিভিন্ন কৌশল নিয়ে কথা হবে। যারা সিনেমার শিক্ষার্থী তারা উপকৃত হবেন। দেশি-বিদেশি এক্সপার্টরা এতে মাস্টার ক্লাস নেবেন।

আগামী ২১ জানুয়ারি সারাদিন জাতীয় জাদুঘরের সিনেপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হবে এ মাস্টার ক্লাস। এতে অংশ নেবেন মার্কিন চলচ্চিত্র পরিচালক জন জোস্ট ও বেলজিয়ামের চিত্রনির্মাতা অ্যানজা স্ট্রেলেক। বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা তাসমিয়া আফরিন মৌ ও চিত্রনাট্যকার সাদিয়া খালিদ রীতি থাকবেন মাস্টার ক্লাসের আলোচক হিসেবে।

সংবাদ সম্মেলনে বিধান বলেন, কীভাবে শূন্য বাজেটে বা কম খরচে ক্যামেরা পরিচালনা, প্রাকৃতিক আলো ব্যবহার করে অভিনয় শিল্পীদের দিয়ে অভিনয় করানো এবং চলচ্চিত্র সম্পাদনা করা যায়, সেসব নিয়ে কথা বলবেন জন জোস্টভ।

চলচ্চিত্রে গল্প বলার ধরন, সিনেমাটোগ্রাফি, লোকেশন খুঁজে বের করা এবং প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণে সাক্ষাৎকার গ্রহণের কৌশল নিয়েও কথা বলবেন অ্যানজা স্ট্রেলেক।

১৪ জানুয়ারি শুরু হচ্ছে ডিআইএফএফ। এ উৎসবের ২১তম আসরটি চলবে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত। ১৪ জানুয়ারি বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এতে উপস্থিত থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

ডিআইএফএফ এর পর্দা উঠছে ‘জেকে ১৯৭১’ সিনেমা প্রদর্শনের মাধ্যমে। ফাখরুল আরেফিন খান পরিচালিত সিনেমাটি প্রদর্শিত হবে ১৪ জানুয়ারি বিকেল ৫টায় জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে।

উৎসবে ভারতের বেশকিছু সিনেমাও দেখানো হবে। এছাড়াও প্রদর্শিত হবে ৭১টি দেশের ২৫২টি সিনেমা। জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে ১৫ জানুয়ারি বিকেল ৫টায় প্রদর্শিত হবে আশিক মোস্তফা পরিচালিত ‘থার্টি-ফাইভ’ এবং সন্ধ্যা ৭টায় প্রদর্শিত হবে সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকী পরিচালিত ‘যা হাড়িয়ে যায়’ সিনেমা দুটি। পরদিন একই স্থানে ও সময়ে দেখানো হবে ‘হাওয়া’ সিনেমা।

জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে ১৭ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় ‘বিউটি সার্কাস’, ১৮ জানুয়ারি ‘দামাল’, ১৯ জানুয়ারি ‘পাপ পুণ্য’, ২০ জানুয়ারি প্রদর্শিত হবে ‘সাঁতাও’। ২১ জানুয়ারি একই মিলনায়তনে বিকেল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টায় দেখা যাবে ‘দেশান্তর’ ও ‘মৃত্যুঞ্জয়ী’ সিনেমা।

ওয়াইড অ্যাঙ্গেল বিভাগে ১১টি সিনেমার মধ্যে রয়েছে খিজির হায়াৎ খান পরিচালিত সিনেমা ‘ওরা ৭ জন’। এ বিভাগেই এবার প্রদর্শিত হবে উপমহাদেশের খ্যাতনামা চলচ্চিত্রকার ঋত্বিক কুমার ঘটকের দুর্লভ প্রামাণ্যচিত্র ‘দুর্বার গতি পদ্মা’। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে এটি নির্মাণ করেন ঋত্বিক।

পশ্চিমবঙ্গের নির্মাতা অনিক দত্ত পরিচালিত সিনেমা ‘অপরাজিত’ দেখার সুযোগ থাকছে ঢাকার দর্শকদের। সিনেমাটি এশিয়ান ফিল্ম কম্পিটিশন বিভাগে প্রতিযোগিতা করবে। সিনেমা ‘অফ দ্যা ওয়ার্ল্ড’ বিভাগে দেখা যাবে বাংলাদেশের ‘হাওয়া’, পরমব্রত চট্টপাধ্যায় পরিচালিত সৌমিত্র চট্টপাধ্যায়কে উৎস্বর্গ করে নির্মিত ‘অভিযান’, ‘ব্যোমকেশ হত্যামঞ্চ’, ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’।

উৎসবের একই বিভাগে প্রতিযোগিতা করবে জয়া আহসান অভিনীত ‘ঝরা পালক’, ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী সাই পল্লবি অভিনীত ‘গার্গি’। এ সিনেমা দুটিও দেখা যাবে উৎসবে।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের মূল ও সুফিয়া কামাল মিলনায়তন, আলিয়ঁস ফ্রঁসেজ, স্টার সিনেপ্লেক্সে উৎসবের সিনেমাগুলো প্রদর্শন করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১২, ২০২৩
এনএটি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।