ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

অভিজ্ঞতা সব সময়ই দামি, প্রমাণ করলেন সজল

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
অভিজ্ঞতা সব সময়ই দামি, প্রমাণ করলেন সজল আব্দুন নূর সজল

ছোট পর্দার বড় তারকা আব্দুন নূর সজল। দুই দশক ধরে নিজেকে বারবার ভেঙেছেন, গড়েছেন।

বৈচিত্র্যময় চরিত্র ও ভিন্নস্বাদের গল্প নিয়ে নাটক-টেলিছবিতে হাজির হয়ে দর্শকের মন ছুঁয়ে গেছেন বারবার। বিশেষ করে রোমান্টিক চরিত্রে অভিনেতা সজল অনবদ্য এক নাম।

সম্প্রতি যেন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছিলেন এই অভিনেতা। ভিউ আর ট্রেন্ডিংয়ের যে বাজার, সেখানে খুব একটা আলোচনা পান না তিনি। তবে অভিজ্ঞতা যে সব সময়ই দামি, তা আরো একবার প্রমাণ করলেন।

৩০ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত নতুন ওয়েব সিরিজ ‘দ্য সাইলেন্স’। সময়ের অন্যতম আলোচিত তরুণ নির্মাতা ভিকি জাহেদ এটি নির্মাণ করেছেন। থ্রিলারধর্মী নির্মাণে তিনি নজর কেড়েছেন। তার ‘দ্য সাইলেন্স’ সিরিজে শিবলী চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল।  

এ চরিত্রের জন্য সিরিজটি মুক্তি পেতেই দর্শকের প্রশংসায় ভাসছেন অভিনেতা। অল্প সময়ের উপস্থিতিতেও রহস্যময় চরিত্রটিতে সজল নিখুঁত হয়ে ধরা দিয়েছেন। যার সংলাপ ও অভিব্যক্তি মন ছুঁয়েছে দর্শকের। সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলেই দেখা যাচ্ছে সজলের প্রশংসায় নানান লেখা।  

শুধু তাই নয়, ‘দ্য সাইলেন্স’ সিরিজে সজলের অভিনয় দেখে মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন অনেক তারকাও। তার মধ্যে অন্যতম গুণী অভিনেত্রী ডলি জহুর।  

তিনি ফেসবুকে দীর্ঘ স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন, সজল কতটা সাবলীল ছিলেন সিরিজটিতে। সেই সঙ্গে অভিনেতার চরিত্রটি দেখে ভয় পেয়েছেন তিনি, তা-ও জানালেন।

এ যেন পথ হারিয়ে ফেলার পর নতুন করে ফিরে আসা। যে প্রত্যাবর্তনে আছে আত্মবিশ্বাস ও সাফল্যের আনন্দ। ‘দ্য সাইলেন্স’ সিরিজে নিজের চরিত্রটি নিয়ে সজল বলেন, ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তা যে সাতটি অভ্যাস অপছন্দ করেন সেগুলোই পছন্দ করে ইবলিশ। লোভ, লালসা, হিংসার মতো সেই সাতটি অভ্যাসের সৃষ্টিই তো মানুষকে ধোঁকার ফাঁদে ফেলার জন্য। এই ধোঁকা দেওয়ার কাজ করে ইবলিশ। এমনই একটি চরিত্র শিবলী। রহস্যময়। ঘৃণ্য। ভয়ংকর। সিরিজটি প্রচারের পর থেকে দারুণ রেসপন্স পাচ্ছি। সবাই আমার চরিত্রটি দেখে অবাক হয়েছেন বলে জানাচ্ছেন। অনেকে বলছেন ভয় পাওয়ার কথা। কেউ কেউ ইবলিশ বলে ডাকছেন মজা করে। আমি কিন্তু উপভোগ করছি সবার মন্তব্য। কারণ এগুলোই কাজের ফিডব্যাক, প্রেরণা।

সিরিজটি মুক্তির আগে বেশ জোরেশোরেই হয়েছে প্রচার। কিন্তু সেই প্রচারের আড়ালে ছিলেন সজল। সিরিজটিতে তার অভিনয়ের কথা জানতেন না প্রায় কেউই। সিরিজটি দেখতে বসে তাই ভয়ংকর একটি চরিত্রে সজলকে দেখে অবাক হয়েছেন দর্শক, চমকেছেনও তারা।  

এ প্রসঙ্গে সজল বলেন, এটা সারপ্রাইজ ছিল। পরিচালক ভিকি জাহেদকে ধন্যবাদ চমৎকার গল্প ও চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ করে দেওয়ায়।

সজল ছাড়াও ‘দ্য সাইলেন্স’ সিরিজে অভিনয় করেছেন মেহজাবীন চৌধুরী, শ্যামল মাওলা, আজিজুল হাকিম, বিজরী বরকত উল্লাহ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২৩
এনএটি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।