ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

সিদ্ধার্থ-কিয়ারার বিয়ের পোশাকে রোমান স্থাপত্যের ছোঁয়া!

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
সিদ্ধার্থ-কিয়ারার বিয়ের পোশাকে রোমান স্থাপত্যের ছোঁয়া! কিয়ারা আদভানি-সিদ্ধার্থ মালহোত্রা

রাজস্থানের জয়সলমেরের সূর্যগড় প্রাসাদে ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে মঙ্গলবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) গাঁটছড়া বেঁধেছেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা এবং কিয়ারা আদভানি। এদিন রাতেই বিয়ের ছবি পোস্ট করেছেন নবদম্পতি।

ছবির সঙ্গে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আব হামারি পার্মানেন্ট বুকিং হো গয়ি হ্যায়’। যার বাংলা অর্থ- এখন আমরা স্থায়ীভাবে পরস্পরের। আরো লেখেন, আমরা আমাদের আগামীর যাত্রায় আপনার আশীর্বাদ এবং ভালোবাসা চাই।

জানা গেছে, বর-কনে দুজনের পোশাকই ডিজাইন করেছেন মণীশ মলহোত্রা। বলিউডের এই সেলেব্রিটি ফ্যাশন ডিজাইনারের অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম পেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে বর আর কনের ডিজাইন করা পোশাকের খুঁটিনাটি।

বিয়েতে গোলাপি রঙের লেহেঙ্গা পরেছিলেন কিয়ারা। যাতে খচিত ছিল রোমান স্থাপত্যের জটিল সূচিকর্ম, যা গম্বুজ শহরের প্রতি নবদম্পতির বিশেষ ভালোবাসার দ্বারা অনুপ্রাণিত। বসানো হয়েছে আসাল সোওয়াভাস্কি ক্রিস্টালস। সঙ্গে কনে পরেছিলেন মণীশ মলহোত্রার ডিজাইন করা বেসপোক ডায়মন্ড জুয়েলারি। এক্সক্লুসিভ এই সেটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে বিরল পান্না।

আর সিদ্ধার্থে পরেছিলেন মেটালিক গোল্ড শেরওয়ানি। তার সম্পর্কে মণীশ মলহোত্রার পেজে উল্লেখ করা হয়েছে, আমাদের সুদর্শন সিদ্ধার্থ পরেছিলেন মেটালিক গোল্ড শেরওয়ানি। যাতে রয়েছে আমাদের ক্লাসিক সিগনেচার ওয়ার্ক, আইভরি থ্রেডওয়ার্ক, গোল্ড জারদৌসি। সঙ্গে বরের সাজে ব্যবহার করা হয়েছে মণীশ মলহোত্রা পোলকি গয়না যাতে ব্যবহার করা হয়েছে আনকাট হিরে রাজকীয় লুক ক্রিয়েট করতে।

২০২১ সলের মুক্তিপ্রাপ্ত ‘শেরশাহ’ সিনেমার সেট থেকেই প্রেম শুরু হয়েছিল সিদ্ধার্থ আর কিয়ারার। দুই বছরের প্রেমের পর অবশেষে পরিণতি পেল এই সম্পর্ক। মঙ্গলবার হিন্দু রীতি মেনে বিয়ে হয় তাদের।

ভক্তদের পাশাপাশি এই দম্পতিকে শুভেচ্ছাবার্তা জানিয়েছে বলিউডের অনেক তারকা। সিদ্ধার্থ আর কিয়ারার বিয়েতে অতিথি তালিকায় দুই পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও ছিলেন ইশা আম্বানি, করণ জোহর, মীরা রাজপুত ও শাহিদ কাপুর, জুহি চাওলারাসহ অনেকে।

এই রাজকীয় বিয়েতে ১০ দেশের ১০০-র বেশি পদ ছিল অতিথিদের খাবারের জন্য। মেনুতে ছিল ইতালিয়ান, চাইনিজ, আমেরিকান, সাউথ ইন্ডিয়ান, মেক্সিকান, রাজস্থানী, পঞ্জাবি এবং গুজরাটি খাবার। মিষ্টির মধ্যে ছিল জয়সলমেরের বিখ্যাত ঘোটওয়ান লাড্ডু।

পাঞ্জাবি ছেলে সিদ্ধার্থ, পাঞ্জাব এবং দিল্লি থেকে আসা বরপক্ষের অতিথিদের জন্য ছিল মশলাদার ও চটকদার খাবারেরও ব্যবস্থা ছিল। বিয়ের পর সূর্যগড় দূর্গে মঙ্গলবারই বসেছে রিসেপশনের আসর। জানা যাচ্ছে, মুম্বাইয়ের পাশাপাশি দিল্লিতেও বৌভাতের আয়োজন করবেন সিদ্ধার্থ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২৩
এনএটি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।