ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

বিনোদন

ছাদ থেকে পড়ে আহত কণ্ঠশিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২৪
ছাদ থেকে পড়ে আহত কণ্ঠশিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস কণ্ঠশিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস

মাদারীপুর: মাদারীপুরে গ্রামের বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে আহত হয়েছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস। ১০ মিনিট অচেতন থাকার পর অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে ভর্তি করা হয় মাদারীপুরের হাসপাতালে।

 

পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় রাজধানীর পপুলার হাসপাতালে। সেখানেই এখন চিকিৎসাধীন তিনি।  

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনা হলেও রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে ঘটনাটি জানাজানি হয়। যার একটি ভিডিও ও স্ট্যাটাস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করেছেন নকুল কুমার বিশ্বাস নিজেই।

তার সেসব ভিডিও ও স্ট্যাটাস থেকে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদারীপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের কলাগাছিয়া গ্রামের শিমুল গাছের ডাল কাটতে নিজবাড়ির দোতলা ছাদে ওঠেন নকুল। ডাল কাটতে ভবনের রেলিংয়ের পাশে দাঁড়ান। এ সময় অসাবধানবশত মাটিতে পড়ে যান । আশপাশের লোকজন ছুটে এসে অচেতন অবস্থায় খ্যাতিমান কণ্ঠশিল্পীকে পড়ে থাকতে দেখে অ্যাম্বুলেন্সকে খবর দেয় স্বজনরা।  

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আবু সফর হাওলাদার বলেন, গায়ক নকুল কুমার বিশ্বাস হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে, তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যথা পেয়েছেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসা নিতে তাকে মেডিকেল কলেজে যাবার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

নকুল কুমার বিশ্বাসের ঘনিষ্ঠ বন্ধু আসাদুজ্জামান লিটন জানান, অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন আমাদের সবার প্রিয় কণ্ঠশিল্পী। তাৎক্ষণিক হাসপাতালে নিয়ে আসায় তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। তিনি সুস্থ আছেন। তবে এখনো হাসপাতালে ভর্তি তিনি।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে আহত নকুল কুমার বিশ্বাস জানান, গ্রামের বাড়ির শিমুল গাছের ডাল দোতলা ভবনের চারপাশে ছেয়ে গেছে। এতে প্রায়ই সাপ ঘরে ঢুকে। এই ডাল কাটতে গিয়েই তিনি দুর্ঘটনার শিকার হয়। অন্যের সাহায্য ছাড়া তিনি চলাচলও করতে পারেন না।  

রিপোর্ট হাতে পেলে চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি পরবর্তীতে স্বাস্থ্যসেবা নিবেন বলেও জানান। '

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২৪
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।