ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

চলনবিলে ৩ পাখি শিকারিকে জরিমানা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০২৩
চলনবিলে ৩ পাখি শিকারিকে জরিমানা

নাটোর: নাটোরের সিংড়ায় তিন পেশাদার পাখি শিকারিকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে অপর চারজনকে পাখি শিকার করবে না বলে মুচলেকায় স্বাক্ষর করিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এই জরিমানা করেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল ইমরান।

অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত পাখি শিকারিরা হলেন- উপজেলার হুলহুলিয়া এলাকার বাসিন্দা লুৎফর রহমান লুতু (৫৪) ও মজি সরদার (৭৫) এবং মুষ্ঠিগড় গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর রাজ্জাক (৬৫)।

এ সময় উদ্ধার করা ১৫টি পাখি অবমুক্ত ও জব্দকৃত প্রায় ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জালসহ পাখি শিকারের ফাঁদ পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী মো. সাইফুল ইসলাম, সহ-সভাপতি হাসান ইমামসহ স্থানীয় পরিবেশ কর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ভোর ৫টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত হুলহুলিয়া ও মুষ্ঠিগড় বিলের দুর্গম এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাতজন পাখি শিকারিকে আটক করা হয়। এর মধ্যে চারজনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

চলনবিল জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, প্রতি বছর বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সময় কিছু পেশাদার পাখি শিকারি নেট জালসহ বিভিন্ন ফাঁদ তৈরি করে পাখি শিকার করেন। এ বছরও চলনবিলের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে অবাধে পাখি শিকার চলছে।

এ বিষয়ে পরিবেশ কর্মী ও স্থানীয় প্রশাসন সজাগ আছেন। মাঝেমধ্যে অভিযান পরিচালনা করে পাখি শিকারিদের আটক করাসহ বিতাড়িত করা হয়। তারই ধারাবাহিকতা শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোর ৫টা থেকে সকার ৯টা পর্যন্ত হুলহুলিয়া ও মুষ্ঠিগড় বিলের দুর্গম এলাকায় ১৫ সদস্যের টিমে দুটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে অভিযান শুরু করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৬ ঘণ্টা নভেম্বর ২৩, ২০২৩
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।