ঢাকা, সোমবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

কনকনে শীতে কাঁপছে তেঁতুলিয়া

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৪
কনকনে শীতে কাঁপছে তেঁতুলিয়া

পঞ্চগড়: বিগত দিনের তুলনায় তাপমাত্রার পারদ কিছুটা বাড়লেও কমেনি শীতের তীব্রতা। এতে করে জবুথবু অবস্থা বিরাজ বরছে উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে।

 

এদিকে সকাল থেকে উত্তর পশ্চিম থেকে বয়ে আসা পাহাড়ি হিমবাতাসের কারণে স্থবিরতা দেখা গেছে জেলা শহরজুড়ে। কনকনে শীত ও ঘন কুয়াশার মধ্যে সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খানিকটা সূর্যের মুখ দেখা গেলেও নেই উত্তাপ।

আবহাওয়া অফিস বলছে, বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে এ দিন ভোর ৬টায় তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সপ্তাহজুড়ে তাপমাত্রার পারদ ওঠানামা করায় কয়েকগুণ বেড়েছে শীতের তীব্রতা। রাতে ও সকালে শীতের তীব্রতা বেশি থাকায় বিপাকে পড়ছেন শিক্ষার্থী, দিনমজুর ও কর্মজীবীরা।  

খুব দরকার না হলে সকালে লোকজন ঘর থেকে বের হচ্ছেন না।  

সকালে শহরের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে দেখা গেছে, জরুরি প্রয়োজনে অনেকে স্টেশন এলাকায় ছুটছেন। এসময় কথা হয় আব্দুল হামিদের সঙ্গে। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, ছেলে দিনাজপুরে লেখাপড়া করে। তাকে ট্রেনে তুলে দিতে স্টেশনে এসেছি। তবে আজ যে ঠান্ডা পড়েছে, তাতে হাঁটা যাচ্ছে না।

কথা হয় দবিরুল ইসলাম নামে স্থানীয় এক ব্যক্তির সঙ্গে। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, গতকালের চেয়ে আজ কুয়াশা ও শীতের তীব্রতা অনেক বেড়েছে। সকাল সকাল কোনো কাজ করা যাচ্ছে না।

এদিকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে কথা হয় রিকশাচালক অলিয়রের সঙ্গে। তিনি বলেন, সকালে বাজারে মানুষ ছিল না। এখন কিছুটা যাতায়াত শুরু হয়েছে। সকাল ও রাতে বাজার প্রায় ফাঁকা থাকছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের পর্যবেক্ষক রোকনুজ্জামান রোকন বাংলানিউজকে বলেন, বুধবার সকাল ৯টায় দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কয়েকদিন দিনের তাপমাত্রা বাড়বে এবং রাত ও সকালের তাপমাত্রা কম থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৪
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।