ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

পেলের জার্সিকে অবসরে পাঠাবে না সান্তোস

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২৩
পেলের জার্সিকে অবসরে পাঠাবে না সান্তোস

আধুনিক ফুটবলে ১০ নম্বর জার্সির প্রভাব অনেক বেশি। কিন্তু এর শুরুটা হয়েছিল পেলের হাত ধরে।

কেননা ১০ নম্বর জার্সি পরেই ফুটবল বিশ্বকে দীর্ঘসময় শাসন করেছেন তিনি। তার কারণেই এই জার্সি নম্বর গায়ে চাপানোর স্বপ্ন দেখেন অগণিত ফুটবলার।  

সদ্য প্রয়াত 'কালো মানিক'-এর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সম্প্রতি তার ১০ নম্বর জার্সি তুলে রাখার পরিকল্পনা করেছিল ব্রাজিলের বিখ্যাত ক্লাব সান্তোস। কারণ ক্যারিয়ারের অধিকাংশ সময় এই ক্লাবেই ১০ নম্বর জার্সি পরে খেলেছেন পেলে। জিতেছেন অসংখ্য শিরোপা।  এই দলের জার্সিতেই ১০০০তম গোল রয়েছে পেলের।  সান্তোসের ইতিহাসে পেলের গুরুত্ব তাই অপরিসীম। তাই তার ১০ নম্বর জার্সি তুলে রাখার কথা ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু এবার সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে সান্তোস।  

'টিওয়াইসি স্পোর্টস' জানিয়েছে, সান্তোসের কাছে বিখ্যাত দশ নম্বর জার্সি আজীবনের জন্য তুলে রাখার অনুরোধ জানিয়েছিল পেলের পরিবার। ক্লাব তাদের এই অনুরোধ গুরুত্বের সঙ্গেই নিয়েছিল। এমনকি জার্সিটি অবসরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত বলেও শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু ক্লাবের প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস রুয়েদা জানালেন, 'খোদ পেলে এই আইডিয়া পছন্দ করতেন না। '

কোলন ক্যানসারের সঙ্গে দীর্ঘ লড়াই শেষে সম্প্রতি ৮২ বছর বয়সে মারা যান পেলে। তার মৃত্যুতে ফুটবলবিশ্বে শোকের ছায়া নেমে আসে। পেলের পুরনো ও প্রিয় ঠিকানা সান্তোস ক্লাব কিংবদন্তির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ১০ নম্বর জার্সি তুলে রাখবে বলে শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমকে ক্লাবের বর্তমান প্রেসিডেন্টের দাবি, ২০১৭ সালে পেলের দেওয়া এক সাক্ষাৎকারের খোঁজ পাওয়া গেছে। যেখানে সান্তোসের ১০ নম্বর জার্সিটি অবসরে পাঠানোর বিষয়ে তার মতামত চাওয়া হয়েছিল। পেলের নাকি তখন আইডিয়াটি 'পছন্দ হয়নি'।   

রুয়েদা মনে করেন, পেলে নিজে যখন জার্সি তুলে নেওয়ার ব্যাপারে মতামত দিয়ে গেছেন, তাই এর বাইরে কিছু করা ঠিক হবে না। এমনকি ক্লাবের সব বোর্ড পরিচালকেরও নাকি একই মত। ফলে পেলে যে জার্সিটিকে অমরত্ব দিয়ে গেছেন, তার যাত্রা থেমে যাচ্ছে না।  

এদিকে পেলের 'শেষ শ্রদ্ধা' আয়োজনে অনেকটাই এগিয়ে গেছে সান্তোস। আগামী সোমবার সান্তোসের ভিলা বেলমিরো স্টেডিয়ামে হবে এই অনুষ্ঠান; চলবে ২৪ ঘণ্টা। এরইমধ্যে পেলেকে শেষ বিদায় জানাতে হাজির হচ্ছেন লাখো ভক্ত-সমর্থক। তাদের জন্য বিশাল দুটি তাবুও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এর একটিতে কফিনে রাখা হবে পেলের নশ্বর দেহ। তাবুর একদিকে চেয়ারে বসবেন পেলের পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনরা। একটি অংশ থাকবে ক্লাব কর্মকর্তাদের জন্য সংরক্ষিত।  

সমর্থকরা কফিনের চারপাশে কিছুটা দূরত্ব বজার রেখে দাঁড়িয়ে কিংবদন্তিকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর সান্তোসের রাজপথ প্রদক্ষিণ করবে পেলের মরদেহ বহনকারী কফিন। শেষকৃত্যের আগে 'ক্যানাল-৬ এরিয়া' পার হবে এই শবযাত্রা, যেখানে থাকেন পেলের শতবর্ষী মা দোনা সেলেস্তে আরান্তেস। ব্রাজিলিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এখনও সন্তানের মৃত্যুসংবাদ জানেন না পেলের মা। কিন্তু শেষকৃত্যের আগে তার বাসাতেই রাখা হবে কফিন, যাতে শেষবারের মতো প্রিয় সন্তানকে দেখতে পারেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২৩
এমএইচএম 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।