ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ আশ্বিন ১৪৩০, ০৫ অক্টোবর ২০২৩, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

যে কারণে রোনালদো-জর্জিনার ‘একত্রবাসে’ বাধা দেবে না সৌদি কর্তৃপক্ষ

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
যে কারণে রোনালদো-জর্জিনার ‘একত্রবাসে’ বাধা দেবে না সৌদি কর্তৃপক্ষ

রেকর্ড পরিমাণ পারিশ্রমিকের বিনিময়ে সৌদি আরবের ক্লাব আল নাসেরে পাড়ি জমিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আড়াই বছরের এই চুক্তি করার পর নিজের সঙ্গিনী জর্জিনা রদ্রিগেজ ও সন্তানদের নিয়ে সৌদিতে আছেন তিনি।

কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যের রক্ষণশীল মুসলিম দেশটির শরিয়া আইন অনুযায়ী, বিয়ে না করে একত্রবাস বা লিভ টুগেদার করা দণ্ডনীয় অপরাধ।  

তবে সংবাদ সংস্থা 'ইএফই'-কে সৌদি আরবের দুইজন আইন বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, বেআইনি হলেও রোনালদোর ব্যাপারে দেশটির কর্তৃপক্ষ 'চোখ বন্ধ করে রাখবে' এবং একত্রবাসে বাধা দেবে না। একজন আইনজীবী বলেন, 'সৌদি আরবের আইন অনুযায়ী বিয়ে ছাড়া একত্রবাস অবৈধ; কিন্তু সম্প্রতি কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে চোখ বন্ধ রাখার নীতিতে চলতে শুরু করেছে এবং কাউকে আর এজন্য শাস্তি দিচ্ছে না। যদিও এই আইনগুলো শুধু কোনো সমস্যা বা অপরাধ সংঘটিত হলে প্রয়োগ করা হয়। তবে বিদেশি নাগরিকদের ক্ষেত্রে এখন পুলিশ বা প্রশাসন আগের মতো কড়াকড়ির পথে বেছে নিচ্ছে না। '

কয়েক বছর আগেও এমনকিছু কল্পনা করাও অসম্ভব ছিল। কারণ দেশটিতে ইসলামী আইন কঠোরভাবে মেনে চলা হতো। কিন্তু ২০১৭ সালে ক্রাউন প্রিন্স হিসেবে মোহাম্মদ বিন সালমান নিয়োগ পাওয়ার পর কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিতে শুরু করে দেশটির সরকার। বিশেষ করে নারীদের অধিকারের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য কিছু পরিবর্তন এসেছে। সেই সঙ্গে বিনোদন ও ক্রীড়াক্ষেত্রে বড় ধরনের পরিবর্তনে হাত দিয়েছেন যুবরাজ সালমান। স্বাভাবিকভাবেই এসব ব্যাপারে বিদেশি নাগরিকদের অংশগ্রহণ জরুরি। তাই যেসব কঠোর আইন সৌদি নাগরিকদের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা হয়, তা থেকে বিদেশি নাগরিকদের ছাড় দেওয়ার পথ বেছে নিচ্ছে তারা। এমনকি রোনালদোর আগে আরও অনেক বিদেশি খেলোয়াড় এই সুবিধা ভোগ করেছেন।

জর্জিনা রদ্রিগেজের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সংসার করলেও বিয়ে করে হয়ে ওঠা হয়নি রোনালদোর। কয়েকদিন আগে পিয়ের্স মরগ্যানকে এক সাক্ষাৎকারে বিয়ে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন সাবেক এই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। সেখানে বিয়ে নিয়ে পরিকল্পনা নিয়ে রোনালদো বলেন, ‘আমি এখন এটি (বিয়ে) নিয়ে ভাবছি না। ভবিষ্যতে দেখবো। কিন্তু আমি মনে করে আমার (বিয়ে) করা উচিত, তারও (জর্জিনার)। কিন্তু এই মুহূর্তে আমার এটি নিয়ে কোনো পরিকল্পনা নেই। ভবিষ্যতে করার ইচ্ছে আছে। ’

এদিকে আল নাসেরে যোগ দিলেও এখনও মাঠে নামা হয়নি রোনালদোর। কারণ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলার সময় এভারটনের এক সমর্থকের ফোন ভেঙে দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন এই পর্তুগিজ উইঙ্গার। ফলে নতুন দলের জার্সিতে মাঠে নামার জন্য দুই ম্যাচ অপেক্ষায় থাকতে হবে তাকে। তবে এরইমধ্যে তার নিবন্ধন শেষ হয়েছে। দলে বিদেশি কোটা পূরণ হয়ে যাওয়ায় ক্যামেরুনের ভিনসেন্ট আবুবকরকে ছেড়ে দিয়ে সেখানে রোনালদোকে যোগ করা হয়েছে।  

সূত্র: টিওয়াইসি স্পোর্টস

বাংলাদেশ সময়: ১১৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০২৩
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa