ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

ফুটবল

টের স্টেগেনের বীরত্বে ফাইনালে রিয়ালের সামনে বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
টের স্টেগেনের বীরত্বে ফাইনালে রিয়ালের সামনে বার্সা

বার্সেলোনা ম্যাচের শুরুটা করে দারুণভাবে; এগিয়েও যায় তারা। কিন্তু রিয়াল বেতিসও কোনো অংশে ছাড় দেয়নি।

সমানে সমান লড়াই করে সমতায় ফেরে। অতিরিক্ত সময়েও দুই দল একটি করে গোল পায়। টাইব্রেকারে গড়ানো ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দেন কাতালান গোলরক্ষক। দলকে নিয়ে যান ফাইনালে।  

বৃহস্পতিবার রাতে কিং ফাহাদ ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে স্প্যানিশ সুপার কাপের দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে নির্ধারিত সময়ের পর ১-১ ব্যবধানে ড্র হলে ম্যাচটি গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে ২-২ সমতার পর টাইব্রেকারে টের স্টেগেনের বীরত্বে ৪-২ ব্যবধানে জয়লাভ করে বার্সেলোনা।

আগামী রোববার (১৫ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় শিরোপার লড়াইয়ে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। বুধবার রাতে প্রথম সেমিফাইনালে তারাও ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জয়লাভ করে ফাইনালে কোয়ালিফাই করে।  

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত বার্সা। তবে রাফিনিয়ার দারুণ পাস বক্স থেকে পায়ে লাগাতে পারেনি কেউই। ২২তম মিনিটে সুযোগ পায় বেতিস। তবে ডি-বক্সের কাছাকাছি বল পেয়ে নাবিল ফেকির শট নিলেও তা ঠেকিয়ে দেন রোনাল্দ আরাউহো। ৪০তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় বার্সা। উসমান দেম্বেলে বক্সে খুঁজে নেন রবের্ত লেভানদোভস্কিকে। তার প্রথম শট লুইস ফেলিপে ঠেকিয়ে দিলেও ফিরতি শটে ঠিকই বল জালে পাঠান।  

বিরতির পর সমতায় ফিরতে মরিয়া বেতিস আক্রমণ বাড়াতে থাকে। বার্সাও থামছিল না। ৫৮তম প্রতিআক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারত কুন্দে। তবে বক্সের বাইরে ছুটে এসে সেটি ঠেকান বেতিস গোলরক্ষক। ৭৫তম মিনিটে রাফিনিয়ার ক্রস ফেরান তরেস পায়ে লাগানোর আগেই ঠেকিয়ে দেন ব্রাভো। দুই মিনিট পর সমতায় ফেরে বেতিস। লুইস হেনরিকের বাড়ানো বল স্টেগেনকে ফাঁকি দিয়ে জালে পাঠান ফেকির।

দুর্দান্ত লড়াইয়ের পর ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানেও শুরুতে বার্সা এগিয়ে যায়। ৯৩তম মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে করা মার্কোস আলোনসোর উড়ে আসা বল বক্স থেকে দুর্দান্ত ভলিতে জালে পাঠান আনসু ফাতি। ১০১তম মিনিটে আবারও সমতায় ফেরে বেতিস। হেনরিকের কাছ থেকে বল পেয়ে বার্সার জাল খুঁজে নেন লরেন মোরন।  

বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে বেতিসের প্রথম দুইটি শট জালে জড়ালেও পরবর্তী দুই শট ঠেকিয়ে বীরত্ব দেখান টের স্টেগেন। বার্সেলোনার হয়ে গোল করতে আসা সবাই ঠিকঠাক শট নিয়ে জাল খুঁজে পান। শেষ শটে পেদ্রির গোলে সুপার কাপের ফাইনাল নিশ্চিত হয় কাতালানদের।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৩
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।