ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ শাবান ১৪৪৫

ফুটবল

সিঙ্গাপুরের জালে বাংলাদেশের ৮ গোল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩
সিঙ্গাপুরের জালে বাংলাদেশের ৮ গোল

আগের ম্যাচেও সিঙ্গাপুরকে উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। এবার দ্বিতীয় ম্যাচে রীতিমতো গোল উৎসব করলো বাংলাদেশের মেয়েরা।

প্রতিপক্ষের জালে গুনে গুনে আট গোল দিল তারা।

আজ বছরের শেষ ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন সাবিনারা। ম্যাচটা স্মরণীয় করে রাখলেন দলের সকলে। র‍্যাংকিংয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে থাকা সিঙ্গাপুর পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশের সামনে। কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম আজ ৮-০ গোলের বিশাল জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশের নারী ফুটবল ইতিহাসে কোনো বড় প্রতিপক্ষের বিপক্ষে এটাই সবচেয়ে বেশি ব্যবধানে জয়। এর আগে ২০১০ সালের ১৫ ডিসেম্বর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে বাংলাদেশ ৯-০ গোলে হারিয়েছিল ভুটানকে।  জোড়া গোল করেছেন ঋতুপর্ণা ও তহুরা। একটি করেছেন গোল সানজিদা খাতুন, সাবিনা খাতুন, মাতসুশিমা সুমাইয়া ও শামসুন্নাহার জুনিয়র।

অতিথিরা আজ একাদশে চারটি পরিবর্তন রেখে খেলা শুরু করে। তাদের হয়ে খেলেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে খেলা ডেনেল্লে তান লি। কিন্তু তাতেও কাজের কাজ কিছু হয়নি।  

শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক চেহারায় বাংলাদেশ। তাতে সুযোগ মিললো বার কয়েক। কিন্তু কাজে লাগাতে পারছিলেন না সাইফুল বারীর শিষ্যরা। তবে সিঙ্গাপুরের ওপর চাপ ধরে রাখায় দ্রুতই মিলল গোল। ১৬তম মিনিটে বাংলাদেশ প্রথম গোলের দেখা পায়। সাবিনার ফ্রি কিকে বক্সের মধ্যে বল পেয়ে আফিদার ভলিতে মাসুরা পারভীন হেড করেন। তহুরা আরেক হেডে বল জালে পাঠান।  

এক মিনিট পরেই অধিনায়ক সাবিনার নেয়া কর্নার কিক সিঙ্গাপুরের ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বল পোস্টের সামনে পড়ে। ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা ঋতুপর্ণা চাকমা প্লেসিংয়ে ২-০ করেন।  ২৪তম মিনিটে বক্সের মধ্য থেকে সানজিদার শট সিঙ্গাপুরের গোলরক্ষক গ্রিপে নিতে পারেননি। সামনে থাকা তহুরা বল জালে পাঠান। প্রথমার্ধে ৩-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।  

দ্বিতীয়ার্ধে আরও পাঁচ গোল করে বাংলাদেশ। এবার আক্রমণের ধার বাড়ায় বাংলাদেশ। ৫৭তম মিনিটে ঋতুপর্ণার বাঁ প্রান্ত থেকে ছোট ক্রসে তহুরার প্লেসিং গোলকিপারের শরীরে লেগে ফিরে আসে। রিবাউন্ড বলে অন্য প্রান্তে থাকা সানজিদা দৌড়ে এসে নিচু শটে গোল করেন।

৬১তম মিনিটে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে ঋতুপর্ণা বাঁ পায়ে জোরালো শটে দলকে পঞ্চম গোল এনে দেন। ৭৫তম মিনিটে শামসুন্নাহার জুনিয়রের পাসে সাবিনা দারুণ প্লেসিং করে ষষ্ঠ গোল পাইয়ে দেন। শেষ দুটি গোল এসেছে দুই বদলি খেলোয়াড়ের কাছ থেকে। ৮৭তম মিনিটে বদলি সুমাইয়া মাতসুসিমা দারুণ এক সাইড ভলিতে গোল করে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেন।

যোগ করা সময়ে শামসুন্নাহার জুনিয়র দলের হয়ে শেষ গোলটি করেন। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে সিঙ্গাপুর কোনও উল্লেখযোগ্য সুযোগই তৈরি করতে পারেনি। দুই ম্যাচে টানা জিতে বাংলাদেশের মেয়েরা বছরটি শেষ করলো দারুণভাবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩
এআর/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।