ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

ম্যানইউয়ের জার্সিতে খেলে পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত জিদানের ইতিহাস

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০২১
ম্যানইউয়ের জার্সিতে খেলে পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত জিদানের ইতিহাস

প্রথম ব্রিটিশ-দক্ষিণ এশিয়ান ফুটবলার হিসেবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে খেলে ইতিহাস গড়েছেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত মিডফিল্ডার জিদান ইকবাল।  

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে গতকাল বুধবার রাতে ইয়ং বয়েজের মুখোমুখি হয়েছিল ম্যানইউ।

ঘরের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ৮৯তম মিনিটে বদলি হিসেবে মাঠে নামেন ম্যানইউর অ্যাকাডেমি থেকে উঠে আসা ১৮ বছর বয়সী জিদান। ম্যাচটি অবশ্য ১-১ গোলে ড্র হয়।

আগেই শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় রেড ডেভিলদের নতুন অন্তর্বর্তীকালীন কোচ রালফ রাংনিক ইয়ং বয়েজের বিপক্ষে দলের রিজার্ভ বেঞ্চ ও নবীন খেলোয়াড়দের বাজিয়ে দেখতে চেয়েছিলেন। সেই মোতাবেক মূল একাদশে ব্যাপক পরিবর্তন আনেন তিনি। তবে বেঞ্চ থেকে জিদানের অভিষেক সবচেয়ে বেশি নজর কাড়ে।  

দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভুতদের মধ্যে এর আগে আরও কয়েকজন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন। যেমন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত হামজা চৌধুরী, যিনি এখন লেস্টার সিটির হয়ে খেলেন। তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মতো এত হাই প্রোফাইল ক্লাবে জিদানই প্রথম দক্ষিণ এশীয় ফুটবলার।  

ম্যানইউয়ের জার্সিতে অভিষেকে উৎফুল্ল জিদান বলেন, 'এটা অসাধারণ ব্যাপার। আমি সারাজীবন এমন সুযোগের অপেক্ষায় ছিলাম। এটা এককথায় স্বপ্ন সত্যি হওয়া। কেবল তো শুরু এবং আশা করি আরও এগিয়ে যেতে পারব। '

অবাক করা বিষয় হলো, জিদানের এমন উত্থান তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারকে ঝামেলায় ফেলতে চলেছে। ম্যানচেস্টারেই জন্ম হলেও ইংল্যান্ডের বয়সভিত্তিক দলে খেলা হয়নি তার। বরং সম্প্রতি তিনি ইরাকের অনূর্ধ্ব-২৩ দলের হয়ে খেলেছেন। এমনকি পাকিস্তানের জার্সিতেও খেলার সুযোগ আছে তার। এখন দেখার বিষয় তরুণ মিডফিল্ডার নিজে কোন দেশকে বেছে নেন।  

জিদানের বাবা একজন পাকিস্তানি এবং মা ইরাকি। এর আগে স্থানীয় সেইল ইউনাইটডের হয়ে খেলেছেন জিদান। সেখানেই তাকে খুঁজে বের করেন ম্যানইউয়ের স্কাউটরা। চলতি বছরের এপ্রিলে ইংলিশ জায়ান্টদের সঙ্গে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন জিদান। এরপর গতকাল রাতে জেসি লিনগার্ডের বদলি হিসেবে নেমে অভিষেকও হিয়ে যায় তার।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৯, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।