ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ভারত

কফ সিরাপ রপ্তানিতে নয়া নির্দেশনা ভারতের, কার্যকর জুনে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৪ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০২৩
কফ সিরাপ রপ্তানিতে নয়া নির্দেশনা ভারতের, কার্যকর জুনে

কলকাতা (পশ্চিমবঙ্গ, ভারত): কফ সিরাপ রপ্তানির আগে অবশ্যই সরকারি ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করাতে হবে। সোমবার (২২মে) এমনই নির্দেশনা জারি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

এ নির্দেশনা আগামী জুন থেকেই কার্যকর হবে। গত বছর ভারতীয় সংস্থার তৈরি কফ সিরাপ খেয়ে গাম্বিয়ায় ৬৬ শিশুর মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ উঠেছিল। সে কারণেই এই বিশেষ নির্দেশনা জারি করল ভারত সরকার।

ডিরেক্টর জেনারেল অব ফরেন ট্রেডের (ডিজিএফটি) পক্ষ থেকে সোমবার (২২ মে) জারি করা বিশেষ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কফ সিরাপ রপ্তানির আগে সরকারি ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করাতে হবে। নমুনা পরীক্ষায় পাস করলে তবেই বিদেশে রপ্তানির অনুমতি মিলবে। আগামী ১ জুন থেকেই এই নিয়ম মানতে হবে ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলোকে।

জানা গেছে, কলকাতা, মুম্বাই, চেন্নাই, হায়দরাবাদসহ একাধিক শহরে কফ সিরাপের নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। নানা রাজ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ ল্যাবরেটরিগুলো থেকেও মিলতে পারে এই সিরাপ রপ্তানির অনুমতি।

জানা যায়, মেডেন ফার্মাসিউটিক্যাল নামে একটি সংস্থার তৈরি কফ সিরাপ খেয়ে মৃত্যু হয়েছে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ার ৬৬ শিশুর। ওই সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, পশ্চিম আফ্রিকার নানা দেশে বিষাক্ত ওষুধ রপ্তানি করেছে তারা। বিশেষ কয়েকটি কফ সিরাপ খাওয়ার ফলে শিশুদের কিডনি বিকল হয়ে গেছে। পরীক্ষা করে দেখা গেছে, বেশ কিছু বিষাক্ত কেমিক্যাল রয়েছে কফ সিরাপগুলোর মধ্যে। এই ওষুধ খাওয়ার ফলে পেটব্যথা, বমির মতো উপসর্গ দেখা দেয়। তারপরই কিডনি বিকল হয়ে নিশ্চিত মৃত্যু। ওই সংস্থার বিরুদ্ধে তদন্তও শুরু করেছে ভারত সরকার।

প্রসঙ্গত, গত বছর ১৭০০ কোটি ডলারের কফ সিরাপ রপ্তানি করেছে ভারত। তারপরই প্রকাশ্যে আসে গাম্বিয়ার ঘটনাটি।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৩ ঘণ্টা, ২৪ মে, ২০২৩
ভিএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad