ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

ভারত

ভারতের সঙ্গে ‘ভিসা অন অ্যারাইভাল’ চালু করা উচিত: নৌপ্রতিমন্ত্রী 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৯ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০২৪
ভারতের সঙ্গে ‘ভিসা অন অ্যারাইভাল’ চালু করা উচিত: নৌপ্রতিমন্ত্রী 

কলকাতা: ভারত-বাংলাদেশের ভিসা সমস্যা নিয়ে প্রতিনিয়ত সরব হচ্ছেন দুই দেশের নেতৃত্বস্থানীয়রা। এবার ভারতের ‘ভিসা অন অ্যারাইভাল’ নিয়ে মুখ খুললেন বাংলাদেশের নৌপ্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) কলকাতায় বেঙ্গল ক্লাবের এক অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অন্তত বাংলাদেশিদের জন্য ভারতের ভিসা অন অ্যারাইভাল খুলে দেওয়া হোক। এ নিয়ে ঢাকার ভারতীয় হাই কমিশনে কথাও বলেছি।

মনে রাখবেন, বহু বাংলাদেশি শুধুমাত্র চিকিৎসার জন্য ভারতে আসেন। আপনারা জানেন, চিকিৎসা ব্যবস্থা ভারতে অনেকটাই উন্নত। যে কারণে প্রচুর বাংলাদেশি ভারতে আসেন। কিন্তু ইদানিং ভিসা সমস্যার জন্য অনেকেই চিকিৎসার জন্য ভারতে আসতে পারছেন না। আমি হাই কমিশনার প্রণয় ভার্মাকে বলেছিলাম, জরুরি চিকিৎসার কথা বিবেচনা করে ভারতের ভিসা অন অ্যারাইভাল খুলে দেওয়া হোক। এতে বহু মুমূর্ষু বাংলাদেশি রোগীর উপকার হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দুই দেশ কিন্তু রেগুলার ভিসা ইস্যু করছে। কিন্তু সময় বেশি লাগায় আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। এটা নিয়ে আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আলোচনা চলছে। কীভাবে ভারতের ভিসা অন অ্যারাইভাল চালু করা যায়- এ নিয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। বিশেষ করে রোগীদের জন্য। আমাদের অনেক দেশের সঙ্গে এ ধরনের ভিসা সিস্টেম রয়েছে। ভারতের সঙ্গে হলে সবচেয়ে ভালো হয়। এখন তো অন্য কোনো সমস্যা আমরা দেখি না। যে কারণে এ বিষয়ে আমরা ভারত সরকারের কাছ থেকে পজেটিভ রেসপন্স পাচ্ছি।

ভারতীয় ভিসা নিয়ে সম্প্রতি ভারতের সাবেক পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছিলেন, আমি মনে করি, ভিসা প্রক্রিয়া আরও সহজ হওয়া উচিত। এ নিয়ে কোনো বাংলাদেশির হয়রানি বা সমস্যা হওয়া উচিত নয়। দুই দেশে মানুষে মানুষে যোগাযোগ রাখার জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজ হওয়া অত্যন্ত জরুরি।

২৩ ফেব্রুয়ারি একই বিষয়ে বাংলাদেশের বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছিলেন, ভারতীয় ভিসা প্রক্রিয়া সহজ হওয়া উচিত এবং ভিসার মেয়াদ দীর্ঘ করা উচিত। না হলে এর জন্য বাংলাদেশিদের ভোগান্তি হয়। আমি আশা করব, ভারত সরকারের সংশ্লিষ্টজনেরা এ বিষয়ে গুরুত্ব দেবেন। আমরাও ভারত সরকারের বিভিন্ন বিষয়ে যাদের সঙ্গে কথা বলি, তাদেরও এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।

বাংলাদেশ সময়: ১০২৫ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০২৪
ভিএস/এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।