ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

শিল্প

আইসিসিবি-তে শুরু হচ্ছে ‘টেক্সটেক বাংলাদেশ-২০১৬’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০১ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১৬
আইসিসিবি-তে শুরু হচ্ছে ‘টেক্সটেক বাংলাদেশ-২০১৬’ ছবি: কাশেম হারুন

ঢাকা: রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সিটি বসুন্ধরায় আগামী ৩১ আগস্ট থেকে ০৩ সেপ্টেম্বর মোট চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক আয়োজক সংস্থা কনফারেন্স অ্যান্ড এক্সিবিশন ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস লি. সেমস্ গ্লোবাল’র আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে ১৭তম ‘টেক্সটেক বাংলাদেশ ২০১৬’।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে অনুষ্ঠান পূর্ববর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক সংস্থা এ কথা জানায়।

সংবাদ সম্মেলনে সেমস্ গ্লোবাল লি.-এর গ্রুপ প্রেসিডেন্ট ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মিসেস মেহরুন এন ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে এবারই প্রথম টেক্সটাইল ও পোশাকখাত নিয়ে এতো বড় একটি অনুষ্ঠান হতে যাচ্ছে। এই এক্সিবিশনে ২৩টি দেশের প্রায় ১০৫০টি কোম্পানি প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছে। এছাড়া প্রদর্শনীগুলোতে টেক্সটাইল ও গার্মেন্টস শিল্পের যন্ত্রপাতি, সুতা, কাপড় উৎপাদক মেশিনারিজ, ডায়েস এবং বিশেষ রাসায়নিক দ্রব্যের বিশাল সমাহার থাকবে।

তিনি বলেন, আমরা চাই বাংলাদেশে নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হোক। ফলে দেশের অর্থনৈতিক খাত আরও বেশি চাঙ্গা হবে। আর এই প্রদর্শনীর ফলে উদ্যোক্তরা নতুন নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হবে। এছাড়া সেখানে সরাসরি আলাপচারিতার সুযোগ থাকবে ফলে ভোক্তা, উদ্যোক্তা, আমদানিকারক ও সরবরাহকারীদের সঙ্গে এক সেতুবন্ধন তৈরি হবে।

উক্ত প্রদর্শনীতে বিশ্বের ২৩টি দেশ অংশ নিচ্ছে। দেশগুলো হলো- বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, কানাডা, চীন, ফ্রান্স, জার্মানি, শ্রীলঙ্কা, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, জাপান, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, তুর্কি, যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন।

মেহরুন এন ইসলাম আরও বলেন, বসুন্ধরার আন্তর্জাতিক মানের কনভেশন সেন্টারে এ প্রদর্শনীতে নিরাপত্তা ব্যবস্থার কোনো কমতি থাকবে না। এছাড়া এখানে যারা আসবেন তাদেরকে আগেই অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। পুরো কনভেশন সেন্টারটি সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত থাকবে। তাই এখানে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে কোনো সমস্যা হবে।

উক্ত অনুষ্ঠান পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- সেমস্ গ্লোবাল লি.-এর ম্যানেজার ও কোর্ডিনেশন মো. শরীফ হোসাইন, প্রশাসন বিভাগের লুৎফুর রহমান, হেড অব মার্কেটিং আবু নঈম মো. শরীফ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৭ ঘণ্টা, আগস্ট ২৩, ২০১৬
এসজে/এসএনএস
 

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।