ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

চৌদ্দগ্রামের ইউএনও’র নামে কুমিল্লা আদালতে মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২
চৌদ্দগ্রামের ইউএনও’র নামে কুমিল্লা আদালতে মামলা

কুমিল্লা: চৌদ্দগ্রামের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস.এম মঞ্জুরুল হকের নামে কুমিল্লা আদালতে মামলা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তার বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন একে.এম সেলিম নামে এক ব্যক্তি।

কুমিল্লার ৫ নম্বর আমলি আদালতের বিচারক ফারহানা ইসলাম মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী মাসুদ সালাউদ্দিন।

মামলার বাদী একে.এম সেলিম জানান, চৌদ্দগ্রামের জুগীরকান্দি গ্রামের বোয়ালিয়া খাল খননের পর খালপাড়ে মাটির স্তুপ জমা পড়ে। এ মাটি মসজিদ-মাদরাসার উন্নয়নে ব্যয় করার জন্য চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে মৌখিকভাবে অনুরোধ জানায় এলাকার লোকজন। ওই কর্মকর্তা মৌখিক অনুমোদন দিলে গত ১৯ জানুয়ারি চারটি এক্সেভেটর মেশিন ভাড়া করে জুগীরকান্দি জলাশয়ে রাখা হয়। লিখিত অনুমতি পেলে মাটি কাটা শুরু হতো। কিন্তু ইউএনও’র আগে এসে কোনো কারণ জানতে না চেয়েই ওই মেশিনগুলো জ্বালিয়ে দেন। এসময় স্থানীয় গিয়াস উদ্দিন চেয়ারম্যানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
 
ইউএনও মঞ্জুরুল হক জানান, দুর্বৃত্তরা স্থানীয় বোয়ালিয়া খাল পাড়ের মাটি কেটে সাবাড় করে ফেলেছে। এ নিয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগও করা হয়। জেলা প্রশাসক মহোদয় আমাকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন। আমি সে অনুযায়ী মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করি। দুর্বৃত্তদের একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট মাটি কাটাসহ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২২
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।