ঢাকা, শনিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালো ফেনীর শিক্ষার্থীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২৩
প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালো ফেনীর শিক্ষার্থীরা

ফেনী: বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই হাতে পেয়েছে ফেনীর কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। ঝকঝকে নতুন বইয়ের পাতার ঘ্রাণে উদ্বেলিত এসব শিক্ষার্থী।

রীতিমতো বই উৎসবে বিভোর তারা।

বছরের প্রথম দিনেই নতুন বই পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ফেনীর প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা।

ফেনী শিশু নিকেতন কালেক্টরেট স্কুলের বই উৎসব শেষে ৩য় শ্রেণির এক শিক্ষার্থী তোলার সময় পেছন থেকে বাংলানিউজের সাংবাদিককে এক শিক্ষার্থীর অনুরোধ, আংকেল! আমার ছবি তোলেন, ভিডিও করেন আমি হাসব। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাব।

নাসিফুল ইসলাম নামের ৮ম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী বলে, আজ বছরের প্রথম দিন। আজই হাতে নতুন বই, ভাবতেই দারুণ লাগছে। নতুন বই ঘ্রাণে দারুণ, পড়তেও ভাল লাগবে। আমাদের হাতে হাতে নতুন বই পৌঁছে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই প্রধানমন্ত্রী।  

শহরের ফেনী বালিক উচ্চ বিদ্যালয় ও ফেনী পাইলট হাইস্কুলে গিয়েও দেখা যায় একই উৎসবের চিত্র। সেখানেও নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা উচ্ছ্বসিত।  

নতুন বই পেয়ে উচ্ছ্বসিত কোমলমতিরা

অবশ্য মলিন মুখের দেখাও মিলেছে।  শহরের সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় গিয়ে দেখা যায় অন্য ক্লাসের শিক্ষার্থীদের বই এলেও ক্লাস সেভেনের বই এখনও আসেনি।  

শিশু নিকেতন স্কুলে গিয়ে দেখা যায় নতুন বই জোটেনি ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থীদের।  

জেলার সোনাগাজী উপজেলার কয়েকটি স্কুলের শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের স্কুলের ৬ষ্ঠ, ৭ম এবং প্রাথমিকের ২য় ও ৩য় শ্রেণির অনেক শিক্ষার্থী নতুন বই পায়নি।  

শোয়েব নামের ফেনী পাইলট হাইস্কুলে শিক্ষার্থী শোয়েব বলেন, নতুন বই পাব বলে এসেছিলাম। অনুষ্ঠান হয়েছে কিন্তু বই পাইনি। স্যাররা বই দেয়নি। না পেয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে। শিক্ষকরা বলছেন পরে। দিবে কবে দিবে জানি না।  

ফেনী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী শোয়াইব ইবনে মোস্তফা বলেন, বই নিতে বিদ্যালয়ে আসলেও অনুষ্ঠানে কয়েকজনকে বই দিয়ে আর কাউকে বই দেওয়া হয়নি।  

আব্দুল্লাহ্ আল মাসুদ নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন, বছরের প্রথমদিনে বই দিবে বলার পর আমরা বিদ্যালয়ে এসেছি। কিন্তু বই না পেয়েই ফিরে যাচ্ছি।

রেজোয়ান হায়দার নামে এক অভিভাবক বলেন, আমার সন্তান ৯ম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়েছে। বিদ্যালয়ে নতুন বইয়ের জন্য আসলেও শিক্ষকরা কাল আসতে বলেছেন। এখন খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে।  

এর কারণ জানাতে শিক্ষা অফিস বলছে, ১ম, ২য়, ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেণিতে নতুন কারিকুলামে বই হবে। সেজন্য বই হাতে আসেনি। বছরের প্রথম দিন না পেলেও অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ওইসব শ্রেণির শিক্ষার্থীদের হাতে হাতে বই পৌঁছে যাবে। তবে কয়েকটি স্কুলের শিক্ষকরা বলেন, খুব শিগগিরই বললেও ধারণা করা হচ্ছে বাকি বইগুলো পেতে বছরের মার্চ মাস হয়ে যাবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২৩
এসএইচডি/এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।