ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

অধিগ্রহণকৃত ৩৪ জমির মালিককে ক্ষতিপূরণের টাকা প্রদান

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
অধিগ্রহণকৃত ৩৪ জমির মালিককে ক্ষতিপূরণের টাকা প্রদান

বাগেরহাট: বাগেরহাটে ১১টি উন্নয়ন প্রকল্পে অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৪ জন জমির মালিককে ৪ কোটি ৫০ লাখ ৬৯ হাজার ৫৫১ টাকার চেক দেওয়া হয়েছে।  

সোমবার (০২ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জমির মালিকদের হাতে চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান।

এসময় স্থানীয় সরকার বিভাগ, বাগেরহাটের উপ পরিচালক মো. শাহিনুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. হাফিজ আল আসাদ, ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা রাশেদুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিন শরণখোলা উপজেলার ৩৫/১ এ উপকূলীয় বেড়িবাঁধ, খানজাহান আলী বিমানবন্দর, খুলনা-মোংলা রেললাইন, মোংলা বন্দরের ড্রেজিং প্রকল্প, পাওয়ার গ্রিড প্রকল্প, সমাজসেবা কার্যালয় নির্মাণ প্রকল্পসহ ১১টি প্রকল্পে অধিগ্রহণের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৪ জন জমির মালিককে ৪ কোটি ৫০ লাখ ৬৯ হাজার ৫৫১ টাকার চেক দেওয়া হয়।

দুর্নীতিমুক্ত, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে কোনো প্রকার হয়রানি ছাড়াই জমি অধিগ্রহণের চেক পেয়ে খুশি ক্ষতিগ্রস্তরা।  

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে এলাকার মানুষের উপকার হয়। মানুষের জীবনযাত্রার মান পরিবর্তন হয়। তবে এ জন্য কিছু মানুষ ক্ষতিগ্রস্তও হয়। যাদের জমি যায়, তারা আসলেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অনেক সময় তাদের সব জমি উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে চলে যায়। তবে এই জমির জন্য সরকার জমির মূল্যের অতিরিক্ত তিনগুণ টাকা দিয়ে থাকে। আমরা ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিকদের হয়রানি ছাড়াই টাকা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।  

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, যদি কোনো ব্যক্তি বা জেলা প্রশাসনের কেউ অধিগ্রহণের টাকার জন্য ঘুষ দাবি করে, তাহলে সরাসরি জেলা প্রশাসকের দপ্তরে জানানোর অনুরোধ রইলো।  
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।