ঢাকা, সোমবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

আড়াইহাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ-সাংবাদিকসহ আহত ১৫

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
আড়াইহাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশ-সাংবাদিকসহ আহত ১৫

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশ, সাংবাদিকসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করতে ৮ রাউন্ড গুলি ছুঁড়েছে।

এই ঘটনায় আহত ৫ পুলিশ সদস্য ও ৩ গ্রামবাসী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়েছেন।

সোমবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের উজানগোপিন্দী-বিনাইরচর এলাকায় এই সংগর্ষ হয়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) স্থানীয় এক মাদরাসার ওয়াজ মাহফিলে ছোট বিনাইরচর গ্রামের এক প্রতিবন্ধী ছেলেকে উজানগোপিন্দী গ্রামের লোকজন মারধর করে। এনিয়ে গত তিনদিন যাবত ওই দুই গ্রামের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল এবং উজানগোপিন্দী গ্রামের লোকজন বেশ কয়েকবার ছোট বিনাইরচর গ্রামে হামলা করে।

তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার দুপুরে ছোট বিনাইরচর গ্রামের মঞ্জুর কাজীর ছেলে মিথুন স্মার্ট কার্ড আনার জন্য উজানগোপিন্দি উচ্চ বিদ্যালয়ে গেলে সেখানে তাকে মারধর করে সেখানকার লোকজন ।

এরপর উভয় গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে। এ সময় ভুলতা বিশনন্দী সড়কে ১ ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।  

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে উত্তেজিত লোকজন তাদের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। ফলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্ণেনে আনতে পুলিশ ৮ রাউন্ড গুলি ছুড়ে।

সংঘর্ষে পুলিশের ৫ সদস্য, সাংবাদিক শাহজাহান কবির এবং মিখুন ও আব্দুল খালেক নামে দুই গ্রামবাসীসহ উভয় পক্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হন। পুলিশ এই ঘটনায় ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম ও স্থানীয় রিপন নামে ২ জনকে আটক করে।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার জানান, পরিস্থিতি আপাতত শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ অবস্থান করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
এমআরপি/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।