ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৯ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

জমি নিয়ে বিরোধ, আমবাগান কেটে সাবাড়!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২৩
জমি নিয়ে বিরোধ, আমবাগান কেটে সাবাড়!

ঠাকুরগাঁও: ঠাকুরগাঁওয়ে জমি নয়ে বিরোধের জেরে একটি আমবাগান কেটে সাবাড় করে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা।

রোববার (০১ জানুয়ারি) দিনগত রাতে রানীশংকৈল উপজেলার রাতোর ইউনিয়নের বড় রাতোর গ্রামে ঘটে এ ঘটনা।

এ ঘটনায় দুই জনের নাম উল্লেখ করে রানীশংকৈল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বাগান মালিক সহিদুর রহমান।

অভিযুক্তরা হলেন, রিয়াজুল ইসলাম (৩৬) ও মুক্তার হোসেন (৪০)। তারা দুইজনেই রাতোর গ্রামের বাসিন্দা।

বাগান মালিক সহিদুর রহমান বলেন, আমার বাগান কেটে ধ্বংস করে দিয়েছে রিয়াজুল ও মুক্তার। জায়গা জমির হিসাব নিয়ে কোনো জটিলতা থাকলে আইন আছে, আদালত আছে। কিন্তু তারা সেগুলো না করে আমার বাগান নষ্ট করেছে। আমি এর বিচার চাই।

স্থানীয় বাসিন্দা হাসেম আলী বলেন, রিয়াজুল গ্রামের একজন চিহ্নিত ভূমি দস্যু। আমার জমিও তিনি গায়র জোরে দখল করেছেন। তার বিরুদ্ধে গ্রামের কেউ কোনো কথা বলার সাহস পায় না। কেউ প্রতিবাদ করলে বড় বড় চাকু বের করে গলায় ঠেকিয়ে তিনি মামলার ভয় দেখান। আমরা এই ত্রাসের হাত থেকে বাঁচতে চাই।

অভিযুক্ত মুক্তার হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি বাগান কাটিনি। কে বা কারা রাতের অন্ধকারে কেটেছে আমি জানি না। জমি নিয়ে যে বিরোধ চলছে, তা আমরা স্থানীয়ভাবে সমাধান করছি। কথাবার্তা কয়েক দফায় হয়ছে।

রানীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ ইকবাল বলেন, রাতোরে গাছ কাটার ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। এর আগেও একটি পুকুর পাড়ের সাতটি গাছ কেটে ফেলায় রিয়াজুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২৩
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।