ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

‘হুজ হু বাংলাদেশ-২০২২’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১২ গুণীজন ও সিটিটিসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২৩
‘হুজ হু বাংলাদেশ-২০২২’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১২ গুণীজন ও সিটিটিসি

ঢাকা: শিক্ষা, সংস্কৃতি, সাহিত্য, সাংবাদিকতাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ১২ গুণী ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠান 'হুজ হু' বাংলাদেশ-২০২২ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর বনানীতে হোটেল শেরাটনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তাদের এ পদক দেওয়া হয়।

অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তরা হলেন- শিক্ষায় সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, শিল্প ও সংস্কৃতিতে রুনা লায়লা, সাংবাদিকতায় ইহসানুল করিম, শিল্প ও সাহিত্যে ড. অগাস্টিন ক্রুজ, সামাজিক কর্মকাণ্ডে সমাজ সেবক কাজী রফিকুল আলম, ক্রীড়ায় সাবরিনা সুলতানা, কৃষিতে লায়ন কহিনুর কামাল, শিল্প-বাণিজ্যে এস এস গ্রুপের মালিক মু. আবু সাদেক, উদ্যোক্তায় স্ট্যান্ডার্ড ফিনিস অয়েলের ম্যানেজিং পার্টনার সুলাইমান এস আযানী, নারী উদ্যোক্তায় নাসিমা আক্তার নিশা, পেশাজীবী বিভাগে প্রফেসর ড. মো. শরফুদ্দিন আহমেদ, আজীবন সম্মাননা শিল্পী রফিকুন নবী এবং প্রাতিষ্ঠানিক সম্মাননা দেওয়া হয় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। এছাড়া সাংবাদিক, কৃষি উন্নয়ন ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ। হুজ হু বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী নাজিনুর রহিমসহ প্রতিষ্ঠনটির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

হুজ হু ১৮৪৯ সাল থেকে যুক্তরাজ্যসহ সারা বিশ্বের অনুসরণীয় গুণীজনদের পুরস্কার প্রদান ও সংক্ষিপ্ত জীবনী প্রকাশ করে আসছে। এ পর্যন্ত বিশ্বের ৩৩ হাজার গুণীজনের সংক্ষিপ্ত জীবনী প্রকাশ করেছে হুজ হু। প্রতি ২ বছর অন্তর ‘হুজ হু বাংলাদেশ’ এই পদক দিচ্ছে। ২০১৬ সালে প্রথম তারা বাংলাদেশে প্রথম সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

২০১৬ সালে পদক প্রাপ্তরা হলেন- কৃষিতে শাইখ সিরাজ, শিল্প ও সংস্কৃতিতে সানজিদা খাতুন, শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রফেসর ড. আনিসুজ্জামান, সাংবাদিকতায় তোয়াব খান, শিল্প ও সাহিত্যে হাসান আজিজুল হক, সামাজিক কর্মকাণ্ডে স্যার ফজলে হোসেন আবেদ, ক্রীড়া ক্ষেত্রে আকরাম খান, শিল্প বাণিজ্যে রহিম আফরোজ গ্রুপের পরিচালক নিয়াজ রহিম, উদ্যোক্তা হিসেবে এ সি আইর চেয়ারম্যান এম আনিস- উদ্দৌলা, ব্যারিস্টার মনোয়ার হোসেন, এনাম আলী এবং আজীবন সম্মননা পান আব্দুল গাফফার চৌধুরী।

২০১৮ সালে হুজ হু বাংলাদেশে দ্বিতীয়বারের মতো সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ২০১৮ তে পদক প্রাপ্তরা হলেন- কৃষিতে ড. এম এ রহিম, শিল্প ও সংস্কৃতিতে আলী জাকের, শিক্ষা ক্ষেত্রে ড. রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিকতায় গোলাম সারওয়ার, শিল্প ও সাহিত্যে সেলিনা হোসেন, সামাজিক কর্মকাণ্ডে ভেলেরি এন টেলর, ক্রীড়া ক্ষেত্রে কাজী মো. সালাউদ্দিন, উদ্যোক্তা হিসেবে ব্রিটানিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ জেপি, ড. শাহজাহান মাহমুদ এবং লাইফ টাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড পান শিল্পী শাহাবুদ্দিন আহমেদ।

২০২০ সালে পদক প্রাপ্তরা হলেন- শিক্ষায় জাতীয় অধ্যাপক ডা. শাহলা খাতুন, শিল্প ও সংস্কৃতিতে মুস্তাফা মনোয়ার, সাংবাদিকতায় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান, শিল্প ও সাহিত্যে বাংলা একাডেমির সভাপতি শামসুজ্জামান খান, সামাজিক কর্মকাণ্ডে সমাজ সেবক খন্দকার মহিউদ্দীন, ক্রীড়ায় জোবেরা রহমান লিনু, কৃষিতে পূর্বাঞ্চলের কৃষক জাগরণের নায়ক মো. আব্দুল বাসির বদু মিয়া, শিল্প-বাণিজ্যে আবদুল হালিম পাটোয়ারী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আবদুল হালিম পাটোয়ারী, উদ্যোক্তায় অরর্চাড গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক, নারী উদ্যোক্তায় বিবি রাসেল, আজীবন সম্মাননায় কণ্ঠযোদ্ধা মাহমুদুর রহমান বেনু।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩, ২০২৩
এসজেএ/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।