ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

৫০০ মৃত মুরগি বিক্রির সময় ধরা খেলেন ব্যবসায়ী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২৩
৫০০ মৃত মুরগি বিক্রির সময় ধরা খেলেন ব্যবসায়ী মৃত মুরগি।

মাগুরা: মাগুরা শহরের পুরাতন বাজারে ৫০০ মৃত মুরগি জবাই করে বিক্রির সময় প্রশাসনের হাতে ধরা পড়েছেন রেজাউল ইসলাম নামে এক যুবক। তিনি মুরগি ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলামের ছেলে।

 

মৃত মুরগিগুলোর ওজন কমপক্ষে সাড়ে ৪০০ কেজি। যা পূর্ব চুক্তি অনুযায়ী শহরের বিভিন্ন হোটেলে সরবরাহের জন্য প্রস্তত করা হচ্ছিল।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়। এসময় মৃত মুরগিগুলো জব্দ করা হয়।  

মাগুরা পৌরসভার কসাইখানার পরিদর্শক রিয়াজ খান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি জানতে পারেন শহরের পুরাতন বাজারে ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম মৃত মুরগি বিক্রি করছেন। এ সময় তিনি ও পৌরসভার স্যানেটারি ইন্সপেক্টর কামরুজ্জামানসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান রফিকুল ইসলাম মরা মুরগি জবাই করছেন। এ সময় তিনি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে ম্যাজিস্ট্রেটকে বিষয়টি অবহিত করেন।                                                                                      
মাগুরা পৌরসভার স্যানেটারি ইন্সপেক্টর মো. কামরুজ্জামান বলেন, পৌরসভার পক্ষ থেকে আমরা নিয়মিত বাজার পরিদর্শন করে আসছি। বেশ কিছুদিন ধরে রফিকুল ইসলাম নামে এক মুরগি ব্যবসায়ী জেলার বাইরে থেকে মরা মুরগি ক্রয় করে বিভিন্ন হোটেলে বিক্রি করে আসছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে তার দোকানে বুধবার সকালে অভিযান চালানো হয় এবং ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। এ সময় তিনি জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের ম্যাজিস্টেটকে খবর দেন। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট আসার আগেই অভিযুক্ত ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম পালিয়ে যান। তবে ছেলে মো. রেজাউল ইসলামকে আটক করা হয়েছে।    
                                   
জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের ম্যাজিস্ট্রেট অভিদাস শিকদার বলেন, সাড়ে ৪০০ কেজি ওজনের ৫০০ মৃত মুরগি জব্দ করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম পালিয়ে গেছেন। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৪, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।