ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের মামলা, প্রধান শিক্ষক কারাগারে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২৩
গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের মামলা, প্রধান শিক্ষক কারাগারে

বরিশাল: বরিশালের উজিরপুরে গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের মামলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক প্রধান শিক্ষককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) বিকেলে ওই প্রধান শিক্ষককে কারাগারে পাঠানো হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) দিনগত গভীর রাতে গৃহবধূকে যৌন নিপীড়নের সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে বলে উজিরপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাফর আহম্মেদ জানিয়েছেন।

পুলিশ পরিদর্শক জাফর মামলার বরাতে জানান, মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার কাজিরা গ্রামে এক গৃহবধূর ঘরে ঢুকে তাকে যৌন নিপীড়ন করেন অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক। তখন গৃহবধূর স্বজনরা তাকে আটক করে থানায় জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে পৌঁছে ওই শিক্ষককে নিজেদের হেফাজতে নেয়।

তিনি জানান, এ ঘটনায় বুধবার গৃহবধূর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার আসামি হিসেবে অভিযুক্ত শিক্ষককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে উজিরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তাসলিমা বেগম জানান, ঘটনা শুনেছি। পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা দপ্তরে লিখিতভাবে জানানো হবে।

ভিকটিম সাংবাদিকদের জানান, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক বিয়ে করার কথা বলে দীর্ঘদিন ধরে তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে চালিয়ে আসছিলেন। তিনি অনৈতিক সম্পর্কে জড়াতে রাজি না হলে সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে জিম্মি করতেন ওই শিক্ষক।

ভিকটিমের চাচাতো ভাই সাংবাদিকদের জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন যাবত দুই সন্তানের জনক ওই শিক্ষক অবৈধ সম্পর্ক করেছে। মঙ্গলবার গভীর রাতেও আসামি তার বোনের ঘরে যায়। তখন স্বামীসহ স্বজনরা আপত্তিকর অবস্থায় তাকে আটক করে। পরে স্থানীয় জনতা গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে ওই শিক্ষককে উদ্ধার করেছে।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, ওই শিক্ষকের চরিত্র ভালো নয়। যে কারণে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি হতে চায় না।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৩ ঘণ্টা, জানুয়া‌রি ৪, ২০২৩
এমএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।