ঢাকা, শনিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৮ মে ২০২৪, ০৯ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

কিস্তি আদায়ের পরিবর্তে নিহত ক্রেতার পাশে দাঁড়াল ওয়ালটন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০২৩
কিস্তি আদায়ের পরিবর্তে নিহত ক্রেতার পাশে দাঁড়াল ওয়ালটন

ফরিদপুর: ৫ হাজার টাকা জমা দিয়ে কিস্তিতে ওয়ালটন থেকে ১৪ হাজার ২০০ টাকা মূল্যের মোবাইল নিয়েছিলেন রেজাউল মোল্যা। কিন্তু কোনো কিস্তি জমা দেওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়।

এ অবস্থায় কিস্তির টাকা আদায়ের পরিবর্তে তার পরিবারের পাশে দাঁড়াল দেশের শীর্ষস্থানীয় ইলেক্ট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন গ্রুপ।

পাওনা টাকা মওকুফ করে রেজাউল মোল্যার পরিবারকে দেওয়া হয়েছে আর্থিক সুবিধার চেক। নিহত রেজাউল ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার চরবামুন্দী এলাকার বাসিন্দা।

বুধবার (০৪ জানুয়ারি) বিকেলে উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের চরবামুন্দী এলাকায় চরবামুন্দী জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে রেজাউলের ছেলে স্বাধীন মোল্যার হাতে মোট ৫০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন ওয়ালটনের কর্মকর্তারা।

এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন- মেগচামী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ছাব্বির উদ্দীন সেখ, ওয়ালটন ফরিদপুর জোনের রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার আব্দুস সেলিম, ক্রেডিট ম্যানেজার মো. আমিনুর ইসলাম, মধুখালী বাজার ওয়ালটন প্লাজার ম্যানেজার বাবুল হোসেন, ইউপি মেম্বার মো. সাগর প্রমুখ।

এদিকে, আর্থিক সুবিধার এ চেক পেয়ে ওয়ালটনকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পরিবারটি।

ওয়ালটন প্লাজার ম্যানেজার বাবুল হোসেন বলেন, ওয়ালটন কিস্তি ক্রেতা সুরক্ষা নীতির আওতায় নিহত রেজাউল মোল্যার পরিবারকে আর্থিক সুবিধার চেক দেওয়া হয়েছে। ওয়ালটন মনে করে, দেশের মানুষের কাছে পণ্য বিক্রি করে প্রতিষ্ঠানটি আজ এতো বড় হয়েছে। তাই দেশের মানুষের প্রতি তাদের একটা দায়িত্ব রয়েছে। সেই দায়িত্ববোধ থেকেই এই 'কিস্তি ক্রেতা সুরক্ষা নীতি' করা। কিস্তি চলমান অবস্থায় ক্রেতা বা তার পরিবারের কোনো সদস্য মারা গেলে পণ্যের মূল্যভিত্তিক ৫০ হাজার টাকা থেকে ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত ওয়ালটনের পক্ষ থেকে আর্থিক সুবিধা দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৪, ২০২৩
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।