ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

কসাইয়ের দোকানে ঝোলানো মাংসের নিরাপত্তা নিয়ে গবেষণায় বাকৃবি  

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩
কসাইয়ের দোকানে ঝোলানো মাংসের নিরাপত্তা নিয়ে গবেষণায় বাকৃবি  

ময়মনসিংহ:  কসাইয়ের দোকানে ঝুলিয়ে রাখা মাংসের নিরাপত্তা বা গুণগত মান কি ? তা জানা নেই কারো। এমনকি মাংস শিল্পের জন্য বিবেচনায় এর একক কোনো বৈজ্ঞানিক তথ্য পাওয়া যায় না।

অথচ এভাবেই কসাইখানায় ঝুলিয়ে রাখা মাংস থেকে প্রয়োজনমতো কিনে নিয়ে যান ক্রেতারা।  

ফলে বিষয়টির জনগুরুত্ব বিবেচনায় এ নিয়ে গবেষণায় নেমেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) পশু পালন অনুষদে একদল বিজ্ঞানী।

বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে বাংলানিউজকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট গবেষক দলের প্রধান ও বাকৃবি পশু পালন অনুষদের প্রফেসর ড. আবুল কালাম আজাদ।  

তিনি জানান, বাজারের কসাইরা সাধারণত গরুর কারকাস (মাংস)  দীর্ঘক্ষণ ঝুলিয়ে রেখে কোনো রকম ঋতু ও সময়ের কথা চিন্তা না করেই বিক্রি করে থাকে। এতে মাংসের নিরাপত্তা ও গুণগত মান কি হয় ? তা নিরূপণ করাই এই কর্মশালার মূল উদ্দেশ্য।    

এর আগে গতকাল ৪ জানুয়ারি প্রাণি সম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ‘কসাইয়ের দোকানে মাংসের নিরাপত্তা ও মান উন্নয়ন’ শিরোনামে একটি কর্মশালা করা হয়।

এ সময় পশু পালন অনুষদের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মুক্তা খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাকৃবি পশু পালন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ছাজেদা আক্তার। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারি প্রকল্প পরিচালক ডা. এবিএম মোস্তানুর রহমান।

এছাড়াও ওই কর্মশালায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।