ঢাকা, সোমবার, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

হাফেজ ও দরিদ্রদের ভাড়া নেন না এই অটোরিকশাচালক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩
হাফেজ ও দরিদ্রদের ভাড়া নেন না এই অটোরিকশাচালক অটোরিকশাচালক মো. শাহিন

কুমিল্লা: কুমিল্লা শহরে কয়েক বছর ধরে অটোরিকশা চালান মো. শাহিন মিয়া (২২)। এই যুবক তার অটোরিকশায় একটি স্টিকার লাগিয়েছেন।

সেখানে লেখা আছে, ‘গরিব অসহায়, হাফেজে কোরআনের জন্য ভাড়া ফ্রি। ’

বিষয়টি নজরে আসতে শাহিনের সঙ্গে কথা বলেন বাংলানিউজের প্রতিবেদক।

কেন এই স্টিকার লাগিয়েছেন বা এমন সমাজসেবার পেছনের কোনো কারণ আছে কি? সেই প্রশ্নে একটি ঘটনা শোনালেন মো. শাহিন।

এ রিকশাচালক বলেন, অটোরিকশা চালাতে গিয়ে রাস্তার ধারে এক নারীকে কাঁদতে দেখি। আমি ওই নারীর সঙ্গে কথা বলে তার সমস্যা জানার চেষ্টা করি। পরে তাকে যতটুকু সম্ভব সহায়তা করি। সম্প্রতি ওই নারীর সঙ্গে আমার আবার দেখা হয়। ওই নারী সে দিনের উপকারের জন্য আমাকে কৃতজ্ঞতা জানান। এটা দেখে আমার ভেতরে অন্য রকম ভালো লাগা কাজ করে। তখন চিন্তা করে দেখলাম, আমার পক্ষেও মানুষের উপকার করা সম্ভব।  

যেই ভাবনা সেই কাজ। রিকশাচালক শাহিন বলেন, ভাবলাম এতো মানুষের ভিড়ে শহরে কয়জনই দরিদ্র মানুষ আর কোরআনে হাফেজ আছেন। এ সংখ্যা অনেক কম। তাই চিন্তা করলাম, অন্তত তাদের জন্য যদি কিছু করা যায়। তাই আমার সামর্থ্যের জায়গা থেকে এ উদ্যোগ গ্রহণ করি।  

শাহিনের অটোরিকশায় চড়া আবদুল আজিজ নামের এক যাত্রী জানান, শাহিনের কাজে দেশপ্রেম ও ইসলামের প্রতি ভালোবাসা ফুটে ওঠে। তিনি দেখিয়েছেন, আমাদের সকলের প্রচেষ্টায় সমাজ ও রাষ্ট্র পরিবর্তন সম্ভব। সেটা যে যার জায়গা থেকে অবদান রাখলেই হয়ে যায়।

যাত্রী আবদুল আজিজের বক্তব্যে সহমত জানাবেন সবাই। কারণ, অটোরিকশাচালক মো. শাহিন মিয়ার বাড়ি কুমিল্লা নগরীর উত্তর চর্থায়। কুমিল্লার অন্যতম অপরাধপ্রবণ এলাকা এই চর্থা। যেখানে কিশোর গ্যাংয়ের দৌরাত্ম্য চলে, খুনখারাপি ঘটে অনেক। আর এমন এলাকায় বেড়ে ওঠা শাহিন দেখিয়ে চলেছেন অনন্য এক দৃষ্টান্ত। পড়াশোনায় প্রাথমিকের গণ্ডি পার হতে পারেননি শাহিন। কিন্তু হৃদয়ে যে মানবিকতাকে তিনি লালন করে চলেছেন তা অনেক শিক্ষিতরাও ভাবতে পারেন না।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০২৩
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।