ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ইজতেমায় প্রথম পর্বে জুবায়ের পন্থী, দ্বিতীয় পর্বে সাদ পন্থীরা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৬, ২০২৩
ইজতেমায় প্রথম পর্বে জুবায়ের পন্থী, দ্বিতীয় পর্বে সাদ পন্থীরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বিশ্ব ইজতেমায় উভয় পক্ষ (জুবায়ের পন্থী ও সাদ পন্থী) সুন্দরভাবে অংশগ্রহণ করবে এমন প্রত্যাশা ব্যক্ত করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, করোনাভাইরাসের আগেও দুই পক্ষ দুই পর্বে দুই বার বিশ্ব ইজতেমায় অংশগ্রহণ করেছেন। এবার বিশ্ব ইজতেমায় প্রথম ধাপে জুবায়ের পন্থীরা এবং দ্বিতীয় ধাপে সাদ পন্থীরা অংশগ্রহণ নেবে।

 

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে এবারের বিশ্ব ইজতেমার ৯৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়ে গেছে। মুসল্লিদের নিরাপত্তায় আমাদের র‌্যাব-পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।  

শুক্রবার (০৬ জানুয়ারি) বিকেলে টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে বিশ্ব ইজতেমার ময়দানে নিরাপত্তা ব্যবস্থাসহ ময়দান পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।  

দুই গ্রুপের মধ্যে কোনো ভুল বোঝাবুঝি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে কি না? জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেহেতু এর আগেও দুই বার দুই গ্রুপই ইজতেমায় অংশগ্রহণ করেছেন তাই নতুন করে আর তাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হওয়ার কিছু নেই। আমার মনে হয় তারা উভয় পক্ষই সুন্দরভাবে ইজতেমায় অংশগ্রহণ করবে এবং শেষ করবে।

বিদেশি মেহমানদের জন্য কি কি সুযোগ সুবিধা থাকবে? সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইজতেমায় বিদেশি মেহমানরা আসবেন। বিগত সময়ের মতো তারা এবারও সব ধরনের সুযোগ-সুবিধাই পাবেন। প্রয়োজনে আমরা আরও কি কি সুযোগ সুবিধা বাড়াতে পারি সে বিষয়ে কাজ চলছে।  

তিনি বলেন, প্রথম পর্বের বিদেশি মেহমানরা প্রথম পর্ব শেষে তাদেরকে হাজী ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হবে। এবং দ্বিতীয় পর্বের যেসব বিদেশি মেহমান আসবে তারা ইজতেমা ময়দানে থাকবেন। ইজতেমা তোমার শেষ হয়ে গেলে তারা যে যার গন্তব্যে চলে যাবেন।

ইজতেমার মুসল্লিদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা কেমন থাকবে? জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নিরাপত্তা ব্যবস্থা সবসময় যেমন থাকে ঠিক তেমনি থাকবে। পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্য মোতায়েন থাকবে। তবে এবার গুরুত্বের সঙ্গে সাইবার ওয়ার্ল্ডে নজরদারি বেশি থাকবে। সেখানে যদি কোনো ঝামেলা না থাকে তবে আর কোথাও সমস্যা থাকবে না।

নিরাপত্তা মোতায়েনে র‌্যাব-পুলিশ, আনসার সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা থাকবে। প্রয়োজনে আমাদের বিজিবি প্রস্তুত থাকবে।

করোনার কারণে দুবছর বন্ধ থাকার পর এবার দুই পর্বে দুই গ্রুপের টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে বিশ্ব ইজতেমা-২০২৩ শুরু হতে যাচ্ছে আগামী শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) থেকে দুই পর্বে। প্রথম পর্বে ১৩, ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি এবং ৪ দিন বিরতি দিয়ে ২০, ২১ ও ২২ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম পর্বের নেতৃত্বে থাকবেন আলেমওলেমাদের জুবায়ের পন্থীরা। দ্বিতীয় পর্বের নেতৃত্বে থাকছেন সাধারণ তাবলীগ অনুসারী মুসল্লিদের নেতৃত্বদানকারী ভারতের মুরুব্বি মাওলানা সাদ পন্থীরা।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৬, ২০২৩
এসজেএ/এসএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।