ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ভাসুরের মারধরে গৃহবধূ হাসপাতালে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৩৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২৩
ভাসুরের মারধরে গৃহবধূ হাসপাতালে

রাজবাড়ী: রাজবাড়ীতে জমি-জমার বিরোধের জেরে ভাসুরের (স্বামীর বড় ভাই) মারধরে ফরিদা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূ আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঘটনাটি ঘটে সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপ্রসাদপুর গ্রামে।

আহত ফরিদা বেগমকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ফরিদা বেগম বাদী হয়ে রাজবাড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, জমি-জমা নিয়ে ফরিদা বেগমের স্বামী মো. ফরিদ খানের সঙ্গে তার বড় ভাই গোলাম গাউছ সেলিমের (৪০) বিরোধ চলে আসছিলো।  

মামলাসূত্রে জানা গেছে, গোলাম গাউছ সেলিমের নেতৃত্বে আহসান হাবিব (৩৭), বাদশা (৫০), নয়ন (২২), লিমা (২৫), পারভীন (৩৫) ও হোসনে আরা আছিয়াসহ (৪২) আরও ১০-১২ জন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ফরিদ খানের বাড়িত ঢুকে তার স্ত্রী ফরিদা বেগমকে বেধড়ক মারধর করে এবং তার আড়াই বছরের শিশু কন্যাকে ছুড়ে ফেলাসহ ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

পরে স্থানীয়রা ফরিদা বেগমকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় ফরিদা বেগম বাদী হয়ে তার ভাই আনোয়ার হোসেনের মাধ্যমে রাজবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত গোলাম গাউছ সেলিম বলেন, আমি কাউকে কোনো মারধর করিনি। তবে আমি আমার ঘর উদ্ধার করার জন্য কিছু লোকজন নিয়ে যাই। আমার ঘরের মধ্যে তাদের কিছু জিনিসপত্র ছিল। সেগুলো বের করার সময় সে (ফরিদা) বাধা দেয়। এ সময় সে আঘাত পেয়ে থাকতে পারে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯১৭ ঘণ্টা, জানুয়া‌রি ০৮, ২০২৩
এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।