ঢাকা, শুক্রবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

অবশেষে ঢাকার আকাশে উঁকি দিল সূর্য

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২৩
অবশেষে ঢাকার আকাশে উঁকি দিল সূর্য ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: সূর্য বিহীন তীব্র শীতের পর দেখা মিলল সূর্যের। কুয়াশার খোলস ছেড়ে উঠল রোদ।

অবশেষে তীব্র ঠাণ্ডার মধ্যে কিছুটা উষ্ণতার পরশ পেল রাজধানীবাসী।  

রোববার (৮ জানুয়ারি) দুপুরের দিকে সূর্যের দেখা পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কয়েক দিনের ঠাণ্ডা কাবু হয়ে যাওয়া মানুষদের অনেকেই রাস্তায় দাঁড়িয়ে সূর্যের আলো পোহাতে দেখা যায়।

রামপুরার বাসিন্দা মুসলিম উদ্দিন জানান, কয়েক দিনের তীব্র ঠাণ্ডায় বাসা থেকে বের হতেও ভয় পেতাম। এবারের ঠাণ্ডাটা মারাত্মক। আমাদের মতন বয়স্ক মানুষের মাংসের হারে পর্যন্ত গিয়ে আঘাত করেছে।

তিনি আরও বলেন, আজকে রোদ দেখার সঙ্গে সঙ্গে বাসার সামনে চেয়ার নিয়ে বসে আছি। সূর্যের আলোটা খুব মিষ্টি লাগছে। এ সূর্যের আলো পোহাতে ঘণ্টাখানেক পার করেছি আরও ঘণ্টাখানেক থাকবো।

এ সময় তার সঙ্গে আরও ১০ থেকে ১২ জন বসে সূর্য আলো পোহাতে দেখা যায়।

এবারের কয়েক দিনের তীব্র শীতে যারা জবুথবু হয়ে চলাফেরা করতেন তারা অনেকটা স্বস্তি পেয়েছেন। লক্ষ্য করা যায়, সূর্যের দেখা পাওয়ায় অনেক বাসার গৃহিণীদের কাপড় ধোয়ার ধুম পড়ে যায়। ছাদে কিংবা বারান্দায় অনেককে রোদ পোহাতে দেখা যায়। রাজধানী জুড়ে বিভিন্ন স্থানে যেখানে রোদ পড়েছে সেখানে নানা মানুষকে রোদ পোহাতে ব্যতিব্যস্ত হতে দেখা যায়।

এদিকে, ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে জরুরি বিভাগের ময়দানে বিভিন্ন রোগী ও তার স্বজনদের রোদ পোহাতে দেখা যায়। বয়োজ্যেষ্ঠ নীলফামারীর জামিল উদ্দিন জানান, নিকট আত্মীয় হাসপাতালের গাইনি বিভাগে ভর্তি। গত কয়েকদিন সূর্য ছাড়া তীব্র শীতে হাড় মাংস চেপে ধরেছে। আজকে সূর্য দেখার সঙ্গে সঙ্গেই ওয়ার্ডে থাকা আত্মীয়-স্বজন আমাকে দ্রুত রোদ পোহাতে বলে। দুই ঘণ্টা যাবত রোদে বসে আছি। খুবই ভালো লাগছে। আরও অনেকেই তার সঙ্গে দাঁড়িয়ে রোদ পোহাতে দেখা যায়।

এছাড়া, রাজধানীতে তীব্র শীত কিছুটা কেটে সূর্য উঁকি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ছোট ছোট বাচ্চাদের কোলে নিয়ে রোদ পোহাচ্ছেন মায়েরা। বাসার ছাদ, বারান্দা কিংবা একটু ফাঁকা জায়গায় রোদের উষ্ণতা নিচ্ছেন তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২২
এজেডএস/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।