ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

সাজেদাকে ফুটপাত থেকে খুঁজে বের করলেন পলক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২৩
সাজেদাকে ফুটপাত থেকে খুঁজে বের করলেন পলক

ঢাকা: জমিজমা নিয়ে ঝামেলায় ঘর ছেড়ে তীব্র শীতে রাজধানীর ফুটপাতে আশ্রয় নেওয়া নাটোরের সিংড়া উপজেলার সাজেদা খাতুনকে খুঁজে বের করে তাকে কম্বল ও অর্থ সহায়তা দিয়ে গ্রামে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

শনিবার একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে ‘রাজধানীতে অসহায় ভাসমান সাজেদা খাতুন’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রচারের পর প্রতিমন্ত্রী তার বিষয়ে খোঁজ-খবর নিতে শুরু করেন বলে জানান আইসিটি বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা শহিদুল আলম মজুমদার।





তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক রোববার (০৮ জানুয়ারি) বেলা ১২টার দিকে সাজেদা খাতুনকে কারওয়ান বাজারের পেট্টোবাংলার পার্শ্ববর্তী ফুটপাতে খুঁজে বের করেন। সাজেদার বাড়ি প্রতিমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা নাটোরের সিংড়া উপজেলার ১ নম্বর সুকাশ ইউনিয়নের হাসপুকুরিয়া গ্রামে।

আইসিটি বিভাগের জনসংযোগ শহিদুল আলম জানান, প্রতিমন্ত্রী সাজেদা খাতুনের বিস্তারিত খোঁজ-খবর নেন এবং তাকে নগদ ২০ হাজার টাকা ও শীতবস্ত্র দেন। নিজের গাড়িতে করে গ্রামে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।



তিনি আরও বলেন, জমিজমা নিয়ে ঝামেলা মিটিয়ে ঘর তৈরি ও পারিবারিকভাবে স্বাবলম্বী করে দিতে তিন লাখ টাকা ও তার সন্তানদের জন্য সার্বিক সহায়তা দেবেন প্রতিমন্ত্রী। শুধু নিজ এলাকার অসহায় মাকেই নয়, ওই এলাকার ফুটপাতের অসহায়দেরও প্রায় দুই শতাধিক শীতের কম্বল দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী। উপস্থিত ছিন্নমূল মানুষদের নিজেদের ফোন নম্বরসহ সরাসরি যোগাযোগের কার্ড দিয়েছেন।

সাজেদা সহায়তা করার সময় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সিংড়া উপজেলায় গৃহহীনদের ১৩৯০টি ঘর তৈরি করে দেওয়া হয়েছে এবং আরও ৩৮৫ জনকে ঘর করে দেওয়া হচ্ছে। আমার এলাকায় আপনার মতো অসহায় এ মায়ের ঘর হবে না, এটা হতে পারে না।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২৩
এমআইএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।