ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

কীভাবে বিশেষাঙ্গ হারালেন, মুখ খুলছেন না যুবক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০২৩
কীভাবে বিশেষাঙ্গ হারালেন, মুখ খুলছেন না যুবক

ফরিদপুর: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় শাহীন আলম (২৬) নামে এক যুবক বিশেষাঙ্গ হারিয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে ঘটনাটি রহস্যেঘেরা।

কেউই এ বিষয়ে মুখ খুলছে না।

ভুক্তোভোগী শাহীন নিজেও বলছেন না, তিনি কীভাবে তার অঙ্গ হারালেন।  

রোববার (০৮ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে উপজেলার হাসামদিয়া এলাকার পারফেক্ট পলিমার ইন্ডাস্ট্রিজের ভেতরে বাথরুমে নিজের বিশেষাঙ্গ হারান ওই যুবক।  

ওই কোম্পানিতে সেলাই মেশিনের অপারেটর হিসেবে চাকরি করেন তিনি।

ভুক্তোভোগী যুবক ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার কাঞ্চনপুর গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে।  

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব বাংলানিউজকে বলেন, তার পুরুষাঙ্গ কেন কর্তন করা হয়েছে সে বিষয়টি এখনো জানতে পারিনি। তবে, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে আমিও যাব। বিস্তারিত জেনে পরবর্তীতে জানাতে পারব।  

হাসপাতাল ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, শাহীন আলম পারফেক্ট পলিমার ইন্ডাস্ট্রিজের ভেতরের একটি রুমে থাকেন। রোববার (০৮ জানুয়ারি) তার কোনো ডিউটি ছিলো না। রুমেই ছিলেন তিনি। হঠাৎ নিজ রুমের বাথরুমের ভেতরে তার চিৎকার শুনে পাশের রুমের লোকজন ছুটে আসেন। এসময় বাথরুমের ভেতরে রক্তাক্ত অবস্থায় পুরুষাঙ্গ কর্তন দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা সাময়িক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।  

এ ব্যাপারে জানতে শাহীনের ভাই সাদিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, দুপুর ১২ টার দিকে আমরা এ খবর পেয়েছি। আমরা ঢাকায় রওনা দিয়েছি। তবে, কীভাবে পুরুষাঙ্গ হারালো আমার ভাই সে ঘটনা এখনো জানতে পারিনি।  

তিনি বলেন, আমার ভাইয়ের শনিবার (০৭ জানুয়ারি) এক বিকাশের দোকানে টাকা দেওয়া-নেওয়া নিয়ে একটু ঝামেলা হয়েছিল। পরে বিষয়টি আমরা ফোন করে সমাধান করি। এছাড়া তিন-চার মাসে আগে শাহীন বিয়ে করেন। স্ত্রীর সঙ্গেও কোনো ঝামেলা নেই তার।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০২৩
এসএএইচ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।