ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ বৈশাখ ১৪৩১, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

ফরিদপুরে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে হামলা, তিন শিক্ষার্থী আহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৯, ২০২৩
ফরিদপুরে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে হামলা, তিন শিক্ষার্থী আহত

ফরিদপুর: ফরিদপুরে রাতের আঁধারে ফরিদপুর ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের ওপর দুর্বৃত্তদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে তিন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

রোববার (০৮ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ১২টার দিকে জেলা শহরে অবস্থিত কলেজ ক্যাম্পাসের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে।  

আহতরা হলেন- অনুজিৎ দত্ত (২২), পার্থ অধিকারী (২১) ও মো. রাশেদুল (২৪)। তাঁরা সবাই কলেজটির বিভিন্ন সেমিস্টারে পড়ালেখা করেন বলে জানা গেছে।

কলেজটির শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শিক্ষার্থীদের কয়েকটি সেমিস্টারের পরীক্ষা চলছে। সেকারণে তারা রাত জেগে পড়ালেখা করেন।  

তারা বলেন, রাতে কলেজটির দুইজন শিক্ষার্থী খাবার খেতে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বের হলে দুজন দুর্বৃত্ত জানতে চান কেন কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বের হয়েছেন, কার অনুমতি নিয়েছেন। এসময় তাদের কাছে থাকা টাকা-পয়সা ও মোবাইল ফোন কেড়ে নিতে আসেন। এসময় তাদের ওপর হামলা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় কলেজটির তিন শিক্ষার্থী আহত হন। পরে কলেজটির শিক্ষার্থীরা আজিজুল হক হামিম (১৭) নামে একজন দুর্বৃত্তকে আটক করে পুলিশে দেন। তারা নেশাখোর ও বখাটে বলে দাবি কলেজের শিক্ষার্থীদের।

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে কলেজের ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে ক্যাম্পাসের মধ্যে নানামুখি স্লোগান দিতে থাকলে, শিক্ষকদের একদল প্রতিনিধি তাদের শান্ত করে নিজ নিজ রুমে ফিরে যেতে অনুরোধ করেন।

এ ব্যাপারে কলেজটির সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান রায়হান খান অপু বলেন, আমাদের কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের দুইজন শিক্ষার্থী রাতের খাবার খেতে যাওয়ার সময় দুই দুর্বৃত্ত তাদের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে তিন শিক্ষার্থী আহত হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে মানিব্যাগ ছিনতাই করে। পরে, আহত দুই শিক্ষার্থী দৌড়ে ক্যাম্পাসের ভেতরে প্রবেশ করে। শিক্ষার্থীরা পালিয়ে এলেও দুর্বৃত্তরা ক্যাম্পাসের গেটে এসে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। এসময় টের পেয়ে ক্যাম্পাসের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা দুর্বৃত্তদের ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পাসের সবাই শান্ত হয়ে কলেজের হলে ফেরার কিছু সময় পর এক দুর্বৃত্ত নেশাগ্রস্ত অবস্থায় রড ও কোদাল নিয়ে পুনরায় ক্যাম্পাসের গেটে এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং একজন শিক্ষার্থীর মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত করে। এতে ক্যাম্পাসের আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে ওই দুর্বৃত্তকে আটক করে গণপিটুনি দেন। এসময় আমিসহ কলেজের কয়েকজন শিক্ষক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কোতোয়ালি থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে ওই দুর্বৃত্তকে আটক করে।  

কলেজটির কয়েকজন সাধারণ শিক্ষার্থীর অভিযোগ, তাদের কলেজের দ্বিতীয় মেইন গেট ও মেইন রোডে পর্যাপ্ত আলো না থাকার কারণে অধিকাংশ সময় মাদকসেবীদের অন্ধকার স্থানে মাদক গ্রহণ করতে দেখা যায়। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ ব্যাপারে ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুমন রঞ্জন সরকার বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শনে পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশ কাজ করছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৯, ২০২৩
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।