ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

সিরাজগঞ্জে সংঘর্ষে গুলিবর্ষণকারী আরিফ ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
সিরাজগঞ্জে সংঘর্ষে গুলিবর্ষণকারী আরিফ ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে লাইসেন্সকৃত বন্দুক দিয়ে গুলিবর্ষণ করা আরিফ ছিলেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। তার গুলি করে ২৪ জনকে আহত করার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে।

তাতে আরিফসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া একটি একনালা বন্দুক জব্দসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার বাঐতারা গ্রামের মো. শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ২৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করেন।

গ্রেফতাররা হলেন, বাঐতারা গ্রামের মো. আব্দুল হাইয়ের ছেলে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক আরিফ হোসেন, একই গ্রামের বুলবুলের ছেলে শাকিল ও আল মাহমুদের ছেলে সাহেদ।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন- সদর উপজেলা কাশিয়াহাটা গ্রামের শাহজাহান প্রামানিকের ছেলে ছাব্বির ও রায়গঞ্জ উপজেলা ধানগড়া গ্রামের এশারত প্রামানিকের ছেলে আয়নাল।

সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) সুমন কুমার দাস বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার সকালে শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। সোমবার (০৯ জানুয়ারি) বিকেলে গুলিবর্ষণকারী আরিফসহ আটক তিনজন এ মামলার আসামি। অপরদিকে ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার দুপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাঐতারা গ্রামের আলম হোসেন ও রুবেল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে রুবেল গ্রুপের পক্ষে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আরিফ তার লাইসেন্স করা বন্দুক নিয়ে গুলিবর্ষণ শুরু করেন। এতে ২৪ জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ৩০ জন আহত হন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।