ঢাকা, সোমবার, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

ঘৃণার জন্য বঙ্গবন্ধুর খুনিদের নাম রাস্তার মোড়ে টাঙিয়ে দেওয়া উচিৎ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
ঘৃণার জন্য বঙ্গবন্ধুর খুনিদের নাম রাস্তার মোড়ে টাঙিয়ে দেওয়া উচিৎ

সিরাজগঞ্জ: রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ আজম বলেছেন, বাংলার অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধুকে যারা সপরিবারে হত্যা করেছে এবং সেই ঘাতকদের যারা সহযোগিতা করেছে তারা বাংলাদেশের নাগরিক হওয়ার যোগ্যতা রাখে না। শাস্তি নিশ্চিত করে ঘৃণা প্রকাশের জন্য তাদের নামের তালিকা রাস্তার মোড়ে টাঙিয়ে দেওয়া উচিৎ।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) বিকেলে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র কাচারি বাড়িতে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপাচার্য বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে বাঙালির বিজয় লাভের আনন্দ পরিপূর্ণতা লাভ করে। ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় সূচিত হলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অনুপস্থিতি মানুষের আকাঙ্ক্ষা অপূর্ণ রেখেছিল। তিনি মৃত্যুদণ্ডাদেশ নিয়ে পাকিস্তানের কারাগারে বন্দী ছিলেন। আন্তর্জাতিক চাপে ৮ জানুয়ারি তাকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয় পাকিস্তান সরকার। ১০ জানুয়ারি তিনি বাংলাদেশে পৌঁছান। বঙ্গবন্ধুর আগমনের মধ্য দিয়েই পূর্ণতা পায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা।

আলোচনা সভা শেষে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় আবৃত্তি, দেশাত্মবোধক গান-নাচ ও নাটক মঞ্চায়ন করা হয়। এর আগে প্রশাসন ভবনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম। পরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বর্ণিল আনন্দ শোভাযাত্রা রবীন্দ্র কাছারি বাড়ি প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।