ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

বলেশ্বরে নৌকা ডুবি

৬ দিন পর মিললো বায়েজিদের লাশ, এখনো নিখোঁজ আরেক ভাই

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
৬ দিন পর মিললো বায়েজিদের লাশ, এখনো নিখোঁজ আরেক ভাই

পাথরঘাটা (বরগুনা): বলেশ্বর নদে নৌকা ডুবে নিখোঁজের ৬ দিন পর পাথরঘাটা থেকে ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে সুন্দরবন সংলগ্ন পক্ষিদিয়া এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় বায়েজিদ বেপারী (১৭) নামে এক ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনো সন্ধান মেলেনি আরেক ভাই ইউসুফ বেপারীর।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে ভাসমান অবস্থায় বায়েজিদ বেপারীর মরদেহ উদ্ধার করেন স্বজনরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ফুফাতো ভাই মো. বেল­াল মাঝি। ইতোমধ্যেই তারা মরদেহ নিয়ে বাড়ির পথে রওয়ানা হয়েছেন বলে বাংলানিউজকে মোবাইল ফোনে জানান তিনি।

বেল­াল মাঝি বলেন, নিখোঁজের দিন থেকেই প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নদীতে অনুসন্ধান করেছি। আজ দুপুরের দিকে নদী থেকে ফিরে আসা জেলেদের কাছ থেকে জানতে পারি সুন্দরবন সংলগ্ন পক্ষিদিয়া এলাকায় মানুষের মতো কিছু ভাসছে। এ খবর বাড়ি থেকে আমাদের ফোনে জানালে আমরা ওই এলাকায় যাই। সেখানে ভাসমান অবস্থায় বায়েজিদের মরদেহ পাওয়া যায়। তার পরনে প্যান্ট ও শার্ট ছিল, শরীর কিছুটা পচন ধরেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) রাতের খাবার খেয়ে চারদিনের বাজার সদাই নিয়ে ইউসুফ ও বায়েজিদ সুন্দরবন সংলগ্ন বলেশ্বর নদে মাছ ধরার জন্য ছোট একটি নৌকা নিয়ে  বাড়ি থেকে রওনা দেয়। পরদিন বুধবার (৪ জানুয়ারি) রাত দেড়টার দিকে বায়েজিদ মায়ের কাছে ফোন দিয়ে জানায় তাদের নৌকা ডুবে গেছে। তারা দুই জন একটি ককশিটের উপর ভেসে আছে। তাদের তাড়াতাড়ি উদ্ধারের জন্য সাহায্য চায়। এরপর থেকে তাদের ব্যবহৃত মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। সেই থেকেই প্রতিদিন পরিবারের পক্ষ থেকে নদীতে অনুসন্ধান করা হয়। পরিবারের ধারণা বায়েজিদের মরদেহ পাওয়া গেছে, হয়তো ইউসুফের মরদেহ কাছাকাছি থাকতে পারে।

পাথরঘাটা সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন বলেন, বায়েজিদের মরদেহ পাওয়া গেছে এমন খবর শুনেছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।