ঢাকা, বুধবার, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

হেঁটে বিশ্ব ভ্রমণের লক্ষ্য নিয়ে ভারতের রোহান এখন দিনাজপুরে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
হেঁটে বিশ্ব ভ্রমণের লক্ষ্য নিয়ে ভারতের রোহান এখন দিনাজপুরে রোহান আগরাওয়াল

দিনাজপুর: অনেকেই বিশ্ব ভ্রমণ অনেকেই করেন মনের আনন্দ ও প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগের জন্য। তবে সেই প্রকৃতি রক্ষায় সবাই কাজ করে না।

তবে পায়ে হেঁটে বিশ্ব ভ্রমণের পাশাপাশি প্রকৃতি রক্ষা ও প্লাস্টিকের ক্ষতিকর দিক সবার কাছে তুলে ধরছেন রোহান আগরাওয়াল নামে এক যুবক।  

মাত্র ১৮ বছর বয়সে ২০২০ সালের ২৫ আগস্ট ঘর থেকে বিশ্ব ভ্রমণে বের হন ভারতের মহারাষ্ট্রের নাগপুরের বাসিন্দা রোহান আগরাওয়াল। বর্তমানে তার বয়স প্রায় ২১ বছর । ভারতের প্রায় ২৭টি রাজ্য ভ্রমণ শেষে ৯০ দিন আগে বাংলাদেশের ফেনী জেলায় আসেন রোহান। গতকাল সোমবার (৯ জানুয়ারি) জয়পুরহাট থেকে হিলি হয়ে রাত ১০টার দিকে দিনাজপুরে আসেন তিনি।  

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন রোহান।  

এ সময় ভ্রমণ ও পরিবেশ নিয়ে তার কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিশ্ব ভ্রমণ ও সেই সঙ্গে পরিবেশ রক্ষা ও প্লাস্টিকের ক্ষতিকর প্রভাব সবার কাছে তুলে ধরতে আমি ঘর থেকে বের হই। প্রথম দিকে পরিবারের লোকজন সাপোর্ট না করলেও বর্তমানে তারা সহায়তা করছেন। আমি ভ্রমণের প্রথম দিকে ভারতের ২৭টি রাজ্যে পায়ে হেঁটে হেঁটে ভ্রমণ করি ও পরিবেশের বিপর্যয় ও প্লাস্টিকের ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরি। তারপর বাংলাদেশে আসি। এখানে প্রায় ৩৪টি জেলা বেড়িয়েছি। ঘর থেকে বের হওয়ার প্রায় ৮৫০ দিন হচ্ছে। ইতোমধ্যে প্রায় ১৫ হাজার কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে ঘুরেছি। স্কুল, কলেজ, বিভিন্ন সংগঠনসহ সাধারণ মানুষকেও পরিবেশ রক্ষা ও প্লাস্টিকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে বোঝাতে চেষ্টা করছি। একার পক্ষে কোনো কিছু সম্ভব নয়। তবে আমি আপনি শুরু করলে পরিবর্তন সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের পর নেপাল, ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, লাওসসহ পৃথিবীর শীতলতম স্থান সাইবেরিয়া ভ্রমণের পরিকল্পনা আছে। সাইবেরিয়া পৌঁছাতে প্রায় ৫ বছর লাগবে।  

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত্রিযাপন শেষে আগামীকাল বুধবার (১১ জানুয়ারি) ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশে রওনা হবেন রোহান আগরাওয়াল।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০২৩
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।