ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

মানিকগঞ্জে বকুল বেগম হত্যা মামলার আসামি আটক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
মানিকগঞ্জে বকুল বেগম হত্যা মামলার আসামি আটক

মানিকগঞ্জ: জমি দখলকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য বকুল বেগম হত্যার প্রধান আসামি সেলিম ও তার সহযোগি রফিককে রাজধানীর মিরপুর ও ফকিরাপুল থেকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৪ এর একটি ইউনিট।  

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিপিসি-৩, র‌্যাব-৪ মানিকগঞ্জ অঞ্চলের কোম্পানি কমান্ডার লে. মোহাম্মদ আরিফ হোসেন।

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, ভোলা জেলার দুলারহাট থানাধীন শিকদার চরের জমির মালিকানা নিয়ে দুইটি গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ ছিল। যার একটি সেলিম গ্রুপ এবং অপরটি আসলাম গ্রুপ। ভিকটিম বকুল বেগমের স্বামী বাচ্চু  স্থানীয় সেলিম গ্রুপের অনুসারী। পূর্ব পরিকল্পনামতে প্রতিপক্ষ আসলাম গ্রুপকে ফাঁসানোর জন্য সেলিম গ্রুপের অনুসারী বাচ্চুর স্ত্রী বকুল বেগমকে হত্যা করার সিদ্ধান্ত নেয়।  

২০২২ সালের ২৯ নভেম্বর বিকেলে দিকে সেলিম ভোলা সদর কোর্টে মামলার হাজিরা দেওয়ার কথা বলে ভিকটিমের স্বামী বাচ্চুকে ভোলা সদরে পাঠিয়ে দেয় এবং সে দিনই সুযোগ পেয়ে বকুল বেগমকে হত্যার করে।

২৯ নভেম্বর দিনগত রাতে শিকদার চরে বকুল বেগমের বাসায় যায়। হত্যার সঙ্গে সহযোগী রফিক বাইরে পাহারা দেয় এবং অন্যান্য আসামিরা ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বসত ঘরের দরজা খুলে ভিতরে প্রবেশ করে ভিকটিম বকুল বেগমকে এলোপাতাড়ি ভাবে কুপিয়ে হত্যা করে।  

পরে প্রতিবেশী অলিল চৌকিদার বাদী হয়ে ভোলা জেলার দুলারহাট থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

মানিকগঞ্জ অঞ্চলের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার মোহাম্মদ আরিফ হোসেন বলেন, গোয়েন্দা তথ্যে ভিত্তিতে আসামিদের রাজধানীর মিরপুর ও ফকিরাপুল এলাকা থেকে সেলিম ও রফিককে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা চাঞ্চল্যকর বকুল বেগম হত্যা মামলার সঙ্গে সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।  

আসামিদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রযেছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১২২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
এসএম
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।