ঢাকা, সোমবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

বৈশ্বিক ক্ষমতাবলয়ে জড়াবে না বাংলাদেশ

তৌহিদুর রহমান, ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
বৈশ্বিক ক্ষমতাবলয়ে জড়াবে না বাংলাদেশ

ঢাকা: নতুন বছরে বাংলাদেশ কোনো ধরনের বৈশ্বিক ক্ষমতাবলয়ে জড়াবে না। বৈশ্বিক পরাশক্তির পারস্পারিক বিরোধ থাকলেও বাংলাদেশ এ থেকে দূরে থাকতে চায়।

একইসঙ্গে সবার সঙ্গে সমানতালে সম্পর্ক অক্ষুণ্ন রেখে দেশের স্বার্থকেই অগ্রাধিকার দিতে চায় ঢাকা।

সূত্র জানায়, ২০২৩ সালে বাংলাদেশের কূটনৈতিক পথরেখা কেমন হবে, বাংলাদেশ কী প্রত্যাশা করছে, তা নিয়ে বিভিন্ন দেশে কর্মরত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভার্চ্যুয়াল বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে আগামী এক বছরে বাংলাদেশের কূটনীতিতে কোন কোন বিষয়গুলো প্রাধান্য দিতে হবে, সে বিষয়ে নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। এছাড়া কূটনীতিকদের বার্তা দেওয়া হয়েছে, বাংলাদেশকে কোনো ধরনের বৈশ্বিক ক্ষমতাবলয়ে জড়ানো যাবে না।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ঘিরে বৈশ্বিক রাজনীতিতে নতুন সমীকরণ তৈরি হয়েছে। এই যুদ্ধ ঘিরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার বিরুদ্ধে এক জোট হয়েছে। রাশিয়ার ওপর নানা নিষেধাজ্ঞাও দেওয়া হয়েছে। তবে রাশিয়ার সঙ্গে চীনের মিত্রতা রয়েছে। এছাড়া ভারতের সঙ্গেও রাশিয়ার সম্পর্ক খুব ভালো। বৈশ্বিক রাজনীতিতে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমানতালে সম্পর্ক বজায় রেখেছে ভারত। এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ভারসাম্যের কূটনীতি রক্ষা করে চলেছে।

তাইওয়ান, উইগুর দক্ষিণ চীন সাগর ইস্যুতে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের তিক্ততা বেড়েই চলেছে। আর সীমান্ত সংঘাত নিয়ে ভারতের সঙ্গে চীনের সম্পর্কেও অবনতি ঘটেছে। তবে বাংলাদেশ বৈশ্বিক পরাশক্তিগুলোর সঙ্গে সমানতালে সম্পর্ক বজায় রাখতে আগ্রহী। নতুন বছরে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ঘিরে বৈশ্বিক সংকটে কোনো ধরনের ক্ষমতাবলয়ে জড়াতে আগ্রহী না।

এদিকে ভৌগলিক রাজনীতিতে ধীরে ধীরে বাংলাদেশের গুরুত্ব বাড়ছে। বাংলাদেশ ভৌগোলিকভাবে ভারত ও চীনের মাঝখানে অবস্থানের কারণে উভয় পরাশক্তিই বাংলাদেশকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। এছাড়া সম্প্রতি এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভূ রাজনীতিতেও বাংলাদেশ বিশেষ গুরুত্ব পাচ্ছে। যে কারণে বাংলাদেশ ঘিরে প্রভাবশালী দেশগুলোর আগ্রহ কম নয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানিয়েছেন, নতুন বছরে বাংলাদেশ ক্ষমতাবলয়ে জড়াবে না। বাংলাদেশ নিজ দেশের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে এগিয়ে যেতে চায়।

আর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আমরা উভয় দেশের (যুক্তরাষ্ট্র-চীন) সঙ্গেই ভালো সম্পর্ক রাখতে চাই। তাদের নিজেদের মধ্যে কী সম্পর্ক, সেটা আমাদের মাথাব্যথা নয়। আমাদের পররাষ্ট্র নীতিই হলো, সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে শত্রুতা নয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০২৩
টিআর/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।